হাজীগঞ্জে গাঁজাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে পুলিশে সোপর্দ

হাজীগঞ্জে গাঁজাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে পুলিশে সোপর্দ

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
হাজীগঞ্জের বাকিলা ইউনিয়নের ফুলছোঁয়া গ্রামবাসী মাদকে অতিষ্ঠ হয়ে গাঁজাসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে পুলিশে সোপর্দ করলেন। আটককৃতরা হলো, ফুলছোঁয়া গ্রামের সর্দার বাড়ির মৃত ইউছুফ মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ আলী (৩২), একই বাড়ির আব্দুল মালেকের ছেলে মো. গোফরান (২১) ও রাধাসার গ্রামের ছৈয়াল বাড়ির ফজলুল হকের ছেলে মো. কাউছার (২৬)।
আটককৃতদের বিরুদ্ধে রবিবার মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা (নং- ১৭) করা হয়েছে এবং ওইদিন তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়। এরপূর্বে শনিবার রাতে মাদক বিক্রি অবস্থায় ফুলছোঁয়া গ্রামবাসী তাদের চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে পুলিশে খবর দেয়। পরে থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) কেএম হাসান মাহমুদুল কবির সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং তাদেরকে ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করেন।
এ দিকে আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীদের পরিবার ও আত্মীয়-স্বজন গ্রামবাসীকে বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছে, এমনকি তাদের বিরুদ্ধে মামলা করারও হুমকি প্রদর্শন করা হয় বলে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়। তবে গ্রামবাসী এক হয়ে প্রশাসনের সহযোগিতায় মাদকের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
হাজীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাবেদুল ইসলাম জানান, বাকিলা ইউনিয়নের তিন গ্রামবাসী মাদক প্রতিরোধে যে উদ্যোগ গ্রহন করেছে, সকল সচেতন ব্যক্তিকে তাঁদের সমর্থন দেওয়া উচিত। থানা পুলিশ সব সময় তাঁদের সহায়তা করবে। আর মামলার আসামীদের রবিবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, মাদকে অতিষ্ঠ হয়ে বাকিলা ইউনিয়নের সন্না, ফুলছোঁয়া ও বোরখাল গ্রামবাসী মাদক প্রতিরোধে একাট্টা ও ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন। তারা শুক্রবার বিকালে ফুলছোঁয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে মাদক প্রতিরোধে মতবিনিময় করে তিন গ্রামের মানুষ স্বত:স্ফুত অংশ গ্রহনের মাধ্যমে মাদক প্রতিরোধে শপথ নিয়েছেন। পরে তাঁরা মাদক বিক্রয় ও সেবনকারীদের বাড়িতে যেয়ে পরিবারের সদস্যদের মাদক বিক্রি না করার অনুরোধ করেন।
ওই সভায় বক্তব্য রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান ইউসুফ পাটওয়ারী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভাপতি আলী আশ্রাফ দুলাল, থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) খলিলুর রহমান, বাকিলা আদর্শ সামাজিক উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি রুবেল হোসেন, জেলা মানবাধিকার সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা তালুকদার, সন্না গ্রামের বাসিন্দা শরীফ হাওলাদার, ফুলছোঁয়া গ্রামের মানিক মোল্লা ও বোরখাল গ্রামের আবদুল জলিল। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউপি সদস্য মো. আবুল বাশার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মতামত লিখুন
আপনার নামটি লিখুন