চাঁদপুরের পালবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

স্টাফ রিপোর্টার: চাঁদপুর শহরের প্রাচীন বড় কাঁচাবাজার হিসেবে পরিচিত পালবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড সংঘটিত হয়েছে। আজ ১২ মার্চ সোমবার আনুমানিক ভোর রাত সাড়ে পাঁচটার দিকে আকস্মিক অগ্নিকান্ডে বাজারের পিছনের অংশের প্রায় ২৫টি দোকান মালামালসহ পুড়ে গেছে।ক্ষয় -ক্ষতি কয়েক কোটি টাকা হবে বলে জানিয়েছেন বাজার ব্যবসায়ি সমিতির নেতারা।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা হচ্ছেন-নুরুল ইসলাম, মজিবুর রহমান, বোরহান, হাবীব, হাসান খান, হারুন পাটওয়ারী, আমিন মাতাব্বর, মোক্তার আহম্মেদ, সিরাজুল ইসলাম, মুকবুল হোসেন, শাহজাহান গোলদার, মনির জমাদার, মিজান জমাদার, মান্নান গাজী, আহম্মদ উল্যাহ, ফরিদ জমাদার, বাসু সৈয়াল, হাবিবুর রহমান, রফিক জামাদার, আব্দুল মান্নান, শাহাদাত হাওলাদার, শামছুল হক পাটওয়ারী, হাবিব গাজী, সফিকুর রহমান গাজী ও মো. কামরুল ইসলাম। এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বেশিরভাগই সব্জির আড়ৎ, ডিমের আড়ৎ, মুদি ও কনফেকশনারী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় প্রথমে ধোয়া দেখতে পায়।কিছুক্ষন পর আগুনের লেলিহান শিখা দাউ দাউ করে জ্বলতে থাকে। পথচারীদের আগুন আগুন চিৎকারে আশপাশের মানুষেরর ঘুম ভেঙ্গে যায় এবং দূর্ঘটনাস্থলে ছুটে এসে দোকানের মালামাল রক্ষার আপ্রাণ চেষ্টা করেন।খবর পেয়ে আগুন নিভাতে ছুটে আসেন চাঁদপুর শহরের ফায়ার স্টেশনের দু’টি ইউনিট।তারা দেড়ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিভাতে সক্ষম হয়। চাঁদপুর নতুনবাজার ফায়ার ষ্টেশনের সিনিয়র ষ্টেশান অফিসার ফারুক আহমেদ জানান,ভোর ৬টা – ১৫ মিনিটের সময় আগুন লাগার খবর পেয়ে আমরা তাৎক্ষণিক দূর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিভানোর কাজ শুরু করি।আমাদের সাথে পুরাণবাজার ষ্টেশন ইউনিটও যোগ দেয়।হাজীগন্জ থেকে ফায়ার সার্ভিস দল আসলেও তাদের দরকার পরেনি।

তিনি জানান,বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।এতে পুরোপুরি এবং আংশিক ২৪টি দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।ক্ষয়ক্ষতির পরিমান এই মূর্হুতে বলতে পারবো না,তদন্ত করে নিরুপন করার কাজ চলছে। পালবাজার ব্যবসায়ি সমিতির সাবেক সভাপতি সামছুল হক পাটওয়ারী জানান,শুনছি বাজারের মুরগীর দোকানের কোনা থেকে আগুন লাগছে।যে ক’টি দোকানে আগুন লাগছে তাদের সব কিছু শেষ হয়ে গেছে।তারা কিছুই রক্ষা করতে পারেনি।ঘটনার পর পর চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ সেখানে মোতায়েন ছিলো।

Leave a Reply