আমি প্রজ্ঞাবান রাজনৈতিক ব্যক্তি নই তবে যা বুঝি: শেখ মহসীন

https://www.bdcurrentnews24.com/wp-content/uploads/2022/07/ad-1.jpg

সভ্যতার সূত্র ধরে রাজনৈতিক প্রসার। রাজনীতির প্রসারে দেশ – মহাদেশ ও সুশৃংখল জাতি পরিচালিত হচ্ছে। আবার রাজনীতি সভ্যতা কে অলংকৃত করেছে।

১২ ই জানুয়ারি ২০২২ বিএনপি’র ডাকা দেশব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশে যেটি প্রমান হলো, সাংগঠনিক কর্মতৎপরতাযর ফলে উদীয়মান শিশু-কিশোরদের রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ একেবারেই চোখে পড়ার মতো।

যদিও অপরাজনৈতির কারণে নীতি – নৈতিকতা এখন সুশীল সমাজের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ। বাস্তবতা হলো এই নীতি-নৈতিকতা যে সোজাই থাকুক এই শিশু-কিশোররা তথাকথিত বড় ভাইদের নির্দেশে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে এসে খালেদা জিয়া ও রাষ্ট্রপতি জিয়া সহ তারেক জিয়ার নামে স্লোগানে স্লোগানে তাদের হৃদয় গভীরে অনুগত্যতা ও দায়বদ্ধতা সৃষ্টি হইতেছে বলে আমি মনে করি। টাকার বিনিময়ে আসুক বা সাংগঠনিক ভালোবাসাই আসুক তারা এসেছে ।

ভালোবাসার অভিনয় করতে করতে যেমন ভালোবাসা হয়ে যায় তেমনি এই শ্লোগানে শ্লোগানে তাদের বড় ভাইয়েরা তাদের অভিষ্ট লক্ষ্যে এই শিশু-কিশোরদের নিয়ে যেতে সক্ষম হবে বলে মনে করি।

অপরদিকে জাতির স্বাধীনতা দানকারী দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে চলছে সাংগঠনিক তৎপরতা হীন ভঙ্গুর বা আংশিক কমিটি প্রদান। মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি রয়েছে বিভিন্ন পর্যায়ে হাজার হাজার। মন্ত্রী-এমপিদের লবিং এর ফলে সংগঠনের লোকজন হয়ে গেছে চাকুরীজীবিদের মত। কেউ অধিষ্ঠিত হয় এসেছে ১৮ বছরের জন্য ২০ বছরের জন্য ও ৩৬ বছর মেয়েদের জন্য।
তাদের কাছে এগুলো আর সাংগঠনিক পোস্ট-পদবী মনে হয় না।

তাদের কাছে এগুলো দলীয় পোস্ট-পদবী যদি মনে হতো তাহলে দ্বিবার্ষিক বা ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন এর ব্যবস্থা করে সাংগঠনিক কর্মতৎপরতার ধারাবাহিকতা অব্যাহত। পকেট কমিটি ও নাযিল করা কমিটির ফলে মিছিল-মিটিং সমাবেশহীন সাংগঠনিক তৎপরতা ঝিমিয়ে থাকায় এসব শিশু-কিশোররা রাজনীতি করার স্বপ্নে বিভোর হয়ে আজ বিভিন্ন দলে গিয়ে ভিড় করছে।

এ ব্যর্থতা সাধারণ মানুষের নয় এ ব্যর্থতা আওয়ামী লীগের সকল পর্যায়ের নীতিনির্ধারকদের। তাই বলবো আমি প্রজ্ঞাবান রাজনৈতিক ব্যক্তি নই তবে যা বুঝি…..

https://www.bdcurrentnews24.com/wp-content/uploads/2022/07/ad-1.jpg