আর ধরবো না জাটকা-ইলিশ খাবো টাটকা,,যাঁরা ধরে জাটকা তাদের ধরে আটকা।

এস এম পারভেজঃ
চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলার ৬ নং চরভৈরবী ইউনিয়নে জাটকা মাছ নিধন বন্ধের প্রতিবাদে চাঁদপুর জেলা জেলে প্রতিনিধিরা ও আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে

১৫ মার্চ মঙ্গবার রাত আনুমানিক সাড়ে টায় চরভৈরবী ইউনিয়নের ৪৭ নং দক্ষিণ বগুলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসময় চরভৈরবী ইউনিয়ন আওয়ামী মৎস্য জীবীলীগের আহব্বয়ক শহিদ মিয়া আখন এর সভাপতিত্বে ও উপজেলা আওয়ামী মৎস্য জীবীলীগের সদস্য সচিব মোঃ আবু জাফর লিটন এর পরিচালনয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মানিক দেওয়ান,চরভৈরবী ইউনিয়ন আওয়ামী মৎস্য জীবীলীগের সদস্য সচিব দেলোয়ার হোসেন বকাউল,মহিউদ্দিন বেপারী সহ হাইমচর উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের ৬ ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় প্রধান অতিথি জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মানিক দেওয়ান তিনি বলেন,আমরা মৎসজীবিরা সরকারে ঘোষিত ২মাস ইলিশের অভয় আশ্রম কালে সরকার ঘোষিত আইন মেনে নদীতে কোনপ্রকার জাল নিয়ে নামবোনা,এবং আমরা চরভৈরবীর সকল জেলেরা এক হয়ে জাটকা নিধনকারী অসাধু জেলেদের বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন ও সংগ্রাম চালিয়ে যাব।

তিনি আরও বলেন আমার প্রাণপ্রিয় জেলে ভাইয়েরা আমরা মাত্র দুটিমাস কষ্টকরে ৮মাস সুখ করবো।যদিও কিছু অসাধু নেতা ও প্রশাসনের ইঙ্গিতে বহিরাগত জেলেরা জাটকা নিধন করেই চলছে,আমরা তাদের বিরুদ্ধে দর্বার প্রতিবাদ ও প্রতিরোধ গরে তুলবো।আপনারা সকল জেলে একহয়ে আপনাদের ক্ষুদ্র সার্থকে পরিহার করুন,দেশ,জাতী ও নিজেদের বৃহৎ সার্থ অর্জন করবো।

উপস্থিত জেলেরা আরো বলেন,আমরা চরভৈরবীর জেলেরা নদীতে জাল নিয়ে নামিনা,নীলকম নৌ ফাঁড়ি ও চাঁদপুর নৌ’ফাঁড়ি প্রাশাসনের বিশেষ দৃষ্টি আকর্শণ করছি যেন আমাদের নদীতে বহিরাগত জেলেদের কোন সার্থের বীনিময়ে জাল ফেলার সুযোগ না করেদেয়।