ইতালি ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞা শিথিল করেছে বাংলাদেশের সঙ্গে

অনলাইন ডেস্ক: ছবি: সংগৃহীত। করোনার ভাইরাসে দেশে আটকে পড়া প্রবাসীদের ইতালিতে প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা কিছুটা কমিয়ে আনছে ইতালি সরকার। বুধবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী জুসেপ্পে কন্তে স্বাক্ষরিত নতুন এক অধ্যাদেশে এসব তথ্য জানানো হয়।

নতুন এ অধ্যাদেশের ১ নাম্বার ধারার উপধারা H ও I তে বিষয়টি স্পষ্ট করে বলা হয়েছে। এছাড়াও ২ নাম্বার ধারার উপধারা A তে বিষয়টি আরো পরিষ্কারভাবে বলা হয়েছে।

ইতালিতে কর্মরত বাংলাদেশী প্রায় দশ হাজার ইতালি প্রবাসী দেশে পাড়ি জমায় ছুটি কাটাতে কিন্তু করোনার কারণে দুই দেশের মধ্যে বিমান চলাচল নিষেধাজ্ঞা থাকায় এসব প্রবাসীরা আটকা পরে বাংলাদেশে। বর্তমানে বাংলাদেশে আটকে পড়া ইতালি প্রবাসীদের মধ্যে যাদের দীর্ঘমেয়াদী পারমিট কার্ড (PERMESSO DI SOGGIORNO LUNGO PERIODO) রয়েছে বর্তমানে তারাই কেবল মাত্র ইতালি প্রবেশ করতে পারবেন। তবে এ সৌজন্যধারীদের অবশ্যই ৯ জুলাইয়ের আগে ইতালি রেসিডেন্স কার্ড থাকতে হবে।

এছাড়াও বাংলাদেসে আটকে পড়া ইতালি প্রবাসীদের মধ্যে নরমাল পারমিট কার্ডধারীদের মধ্যে যাদের ডকুমেন্টসের মেয়াদ আছে তাদের পরিবারের কোন সদস্য যদি দীর্ঘমেয়াদী পারমিট কার্ডধারী হয় এবং তাদের যদি ৯ জুলাইয়ের পুর্বে ইতালির রেসিডেন্স কার্ড থাকে তাহলে তারাও বর্তমান আইনানুযায়ী ইতালিতে প্রবেশ করতে পারবেন।

তবে প্রতিজন প্রবাসীকে যাত্রা শুরু করার ৭২ ঘণ্টা পূর্বে এয়ারলাইন্স কতৃক নির্ধারিত ল্যাবরেটরি থেকে করোনা পরীক্ষা করিয়ে নিতে হবে।

এছাড়া দীর্ঘদিন পর পুনরায় ফ্লাইট চালু হওয়াতে এটিকে প্রবাসী বাঙ্গালীদের জন্য একটি সুখবর বলে মনে করছেন ইতালিস্থ বিভিন্ন বাঙ্গালী কমিউনিটির নেতারা। তবে তারা বর্তমানে ইতালি ফিরবে এমন প্রবাসীদের অবশ্যই ১৪ দিন নিজ বাসায় কোয়ারেন্টাইনে থাকার অনুরোধ করেছেন। এছাড়াও দেশটির সরকারের সকল আইন মেনে চলার উপদেশ দিয়েছেন। যাতে ভবিষ্যতে যেন বাংলাদেশের সাথে ইতালির ফ্লাইট সবার জন্য উন্মুক্ত হয়।