এবার নিলামে উঠছে মাসরাফির জার্সি

অনলাইন ডেস্কঃ এবার নিলামে উঠছে মাশরাফি বিন মুর্তজার স্মারক জার্সি। জার্সি বিক্রি করে সেই টাকায় নড়াইলের স্বাস্থ্যসেবায় কাজে লাগাতে চান জাতীয় দলের সাবেক এই সফল অধিনায়ক।

গত বছর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে মাশরাফি যে জার্সি গায়ে খেলেছিলেন সেই জার্সিটি নিলামে তুলতে যাচ্ছেন। ‘অকশন ফর অ্যাকশন’ নামক সংস্থা মাশরাফির জার্সির নিলাম প্রক্রিয়া পরিচালনা করবে। সুনির্দিষ্ট দিনক্ষণ এখনও ঠিক হয়নি।


আরও পড়ুন: অনুশীলনে স্ট্যাম্প ভেঙে ফেললেন ট্রেন্ট বোল্ট


তবে আগামী বছর এ নিলাম হওয়ার কথা রয়েছে। এমন তথ্যই দিয়েছেন মাশরাফির হাতে গড়া স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম অনিক।

এর আগে নিজের প্রিয় ব্রেসলেট বিক্রি করে সেই টাকা নিজের সংসদীয় এলাকা নড়াইল-২ আসনে ১০ শয্যাবিশিষ্ট বিশেষায়িত হাসপাতাল তৈরিতে ব্যয়ের ঘোষণা দেন মাশরাফি।

ফাউন্ডেশন সূত্রে জানা যায়, মাশরাফির ব্যবহৃত ব্রেসলেট বিক্রির ৪২ লাখ টাকার একটি অংশ ঢাকা, রংপুরসহ করোনায় কাজ করা কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে প্রদান করা হয়েছে। মাশরাফির ঘোষণা মোতাবেক ব্রেসলেট নিলামের টাকার কিছু অংশ করোনায় কাজ করা বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন, বঙ্গবন্ধু স্কোয়াড ছাড়াও দুস্থ খেলোয়াড় এবং অসহায় মানুষের কল্যাণে ব্যয় করা হয়েছে।

ব্রেসলেট নিলামের বাকি ২৫ লাখ টাকা এবং শিগগিরই নিলামে ওঠা জার্সি বিক্রির অর্থ দিয়ে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে ১০ শয্যাবিশিষ্ট বিশেষায়িত হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে। পাশাপাশি এই হাসপাতাল নির্মাণ কাজে আলতাফ হোসেন ও আক্তারুন্নেছা ট্রাস্টও আর্থিক সহায়তা করবে বলে জানা যায়। যেখানে ২৪ ঘণ্টা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের উপস্থিতিতে স্বল্প খরচে সাধারণ মানুষের জন্য স্বাস্থ্যসেবা দেয়া হবে।

হাসপাতালটি সরকারি অনুমোদনের অপক্ষোয় রয়েছে। অনুমোদন পেলেই এটি নির্মাণের কাজ শুরু হবে।

করোনাভাইরাসের কারণে নানা উপায়ে দুস্থদের পাশে দাঁড়িয়েছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। ক্রিকেটারদের গড়া তহবিলে নিজ বেতন থেকে ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা দেন মাশরাফি। নড়াইলে ইতোমধ্যে নিজ অর্থায়নে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন তিনি।

ব্যক্তিগত তহবিল থেকে নড়াইলের ১২০০ পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছেন তিনি। এছাড়া চিকিৎসক ও নার্সদের সর্বমোট ৫০০টি সুরক্ষা পোশাকও (পিপিই) প্রদান করেন তিনি। নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে নড়াইলবাসীর জন্য ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা ব্যবস্থাও চালু করেন মাশরাফি।

একই সঙ্গে নড়াইল সদর হাসপাতালে নিজ অর্থায়নে ‘ডক্টরস সেফটি চেম্বার’ বানিয়েছেন সাবেক জাতীয় দলের এই দলপতি। এবার তুলবেন প্রিয় ক্রিকেট জার্সি, যার বিক্রীত অর্থ খরচ হবে হাসপাতাল নির্মাণে।

নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম অনিক যুগান্তরকে বলেন, মাশরাফি নিজেই ঘোষণা দিয়েছেন তার প্রিয় জার্সি নিলামে বিক্রি করবেন। সুনির্দিষ্ট দিনক্ষণ ঠিক না হলেও আগামী বছর এ নিলাম হওয়ার কথা রয়েছে। নিলামে জার্সি বিক্রীত অর্থ দিয়ে নড়াইলে ১০ শয্যাবিশিষ্ট বিশেষায়িত হাসপাতাল তৈরি করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে ক্রিকেটার মাশরাফির নেতৃত্বে নড়াইলে গঠিত হয়েছিল নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন। ২০১৭ সালের ৪ সেপ্টেম্বর ‘রান ফর নড়াইল’ ম্যারাথনের মাধ্যমেই সংগঠনটি যাত্রা শুরু করে, যার চেয়ারম্যান ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মুর্তজা নিজেই। মূলত স্বাস্থ্য, শিক্ষা, ক্রীড়া, সংস্কৃতি, পরিবেশসহ মোট ১১টি বিভাগে কাজ শুরু করে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন।