কচুয়ায় দ্রুত আগুন নেভানোর সহজ পদ্ধতি আবিষ্কার

ডেস্ক রিপোর্ট || চাঁদপুরের কচুয়ার গোহট উত্তর ইউনিয়নের নাউলা গ্রামের শাহজী বাড়ির আব্দুল আজিজ নামে এক ব্যক্তি দ্রুত আগুন নেভানোর পদ্ধতি আবিষ্কার করেছেন। বর্তমান সময়ে এ পদ্ধতি অনেক কার্যকর হবেন বলে তিনি মনে করেন।

তিনি বলেন, বর্তমানে আগুনের কারনে বস্তি, বড় বড় শিল্প কারখানা, হাসপাতাল, টাওয়ার, বাড়ীঘর, বনানী নিমতলী, নারায়নগঞ্জ এর জুসের কারখানায় আগুনে পুড়ে মরছে হাজারো মানুষ, খালি হচ্ছে হাজারো মায়ের বুক। কিন্তু আমরা কি তাদের জন্য কিছু করতে পেরেছি? না পারি নাই। তার কারন আধুনিক ভাবে দ্রুত আগুন নেভানোর মতো কোনো পদ্ধতি আমাদের জানা ছিলো না। এ চিন্তা করে, দেশের মানুষের কথা ভেবে বিগত ২/৩ বছর শ্রম দিয়ে আবিষ্কার করেছি দ্রুত আগুন নিভানোর পদ্ধতি। যার সাহায্যে আগুন অতিদ্রুত অল্প খরচে, অল্প সময়ে  নিভিয়ে ফেলা যায়। শিল্প কারখানায় বা যেকোনো বিল্ডিং এর ছাদের উপরের পানির টাংকি থেকে আলাদা পাইপ নিয়ে প্রতিটি কক্ষে বা বিশিষ্ঠ বিশিষ্ঠ তলায় সংযোগ থাকলে আগুন লাগার সাথে সাথে সুইচ টিপ দিয়ে পানি মেরে মহুর্তের মধ্যে আগুন নেভানো সম্ভব। তবে এসব পদ্ধতিতে বিদ্যুতের কোনো সংযোগ লাগবেনা। শুধুমাত্র টাংকি ভর্তি পানি থাকলেই চলবে। যাহা আমি পরিক্ষিত করে দেখেছি। যে কোনো স্যানেটারি মিস্ত্রি একবার দেখলেই বা আমার কাছ থেকে শিখে নিলে সংযোগ লাগানো খুবই সহজ।

এ প্রতিনিধির এক প্রশ্নের উত্তরে আব্দুল আজিজ বলেন, আমার এই আবিষ্কারে কোনো স্বার্থ নেই। দেশের মানুষ উপকৃত হলেই আমি গর্বিত হবো। তার এই আবিষ্কার মাননীয়  প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি কামনা করেছেন।