কটিয়াদীতে অবৈধ বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিন জব্দ

মোবারক হোসেন, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে অবৈধ বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আশরাফুল আলম। এই সময় বালু ব্যবসায়ী কে ঘটনাস্থলে না পেয়ে বালু উত্তোলনের ড্রেজার মেশিন জব্দ করা হয়।

জানা গেছে, ২৬ এপ্রিল (রবিবার) উপজেলার  জালালপুর  ইউনিয়নের চরপুক্কিয়ায় ব্রহ্মপুত্র নদী থেকে  দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে লক্ষ লক্ষ টাকার ব্যাবসা করে আসছিল এক শ্রেণির অসাধু বালু ব্যাবসায়ীরা। এতে করে ঐ এলাকার রাস্তা ঘাট সহ পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছিল। কখনো দিনের বেলায় আবার কখনোবা রাতের আঁধারে ও বিশাল ড্রেজার মেশিন দিয়ে প্রতিদিন বিপুল পরিমাণ বালু উত্তোলন করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল এই অসাধু চক্র টি। অবৈধ এই বালু ব্যাবসায়ীদের আজ অভিযানে নামেন সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃআশরাফুল আলম। এ সময় বালু উত্তোলনকারীদের না পেয়ে ড্রেজার মেশিন সহ বালু উত্তোলন সরঞ্জাম জব্দ করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

 অবৈধ বালু ব্যবসায়ীরা প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী কোন প্রতিবাদ করতে পারেনি। সেই সুযোগে তারা প্রভাব খাটিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে এই ব্যবসা করে আসছিলেন। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আশরাফুল আলম অভিযান পরিচালনা করেন। ঘটনাস্থলে কাউকে না পেয়ে বালু উত্তোলন করার ড্রেজার মেশিন জব্দ করে। এতে এলাকাবাসীরা স্বস্তি প্রকাশ করেন।

 অভিযান প্রসংঙ্গে সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্র্যাট মোঃ আশরাফুল আলম বলেন, অবৈধ বালু উত্তোলন করে দীর্ঘ দিন ধরে একটি চক্র ব্যবসা করে আসছিলেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে ঘটনাস্থলে কাউকে না পেয়ে বালু উত্তোলন করার ড্রেজার মেশিন জব্দ করা হয়েছে। অবৈধ বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।
অভিযান পরিচালনা কালে উপস্থিত ছিলেন  কটিয়াদী পৌরসভার স্যানিটারী ইন্সপেক্টর দিদারুল আলম রাসেল। এছাড়াও কটিয়াদী মডেল থানার পুলিশ এই অভিযানে সহযোগিতা করেন।