করোনা মুক্ত হল কিশোরগঞ্জ হাওরের ৪ উপজেলা

মোবারক হোসেন: কিশোরগঞ্জ: দেশে চলমান মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পরপরই কিশোরগঞ্জে ব্যাপকহারে বৃদ্ধি পেতে থাকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এরপর স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে কিশোরগঞ্জ জেলা কে করোনার ‘হটস্পট’ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। বর্তমান পরিস্থিতিতে জেলায় অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রয়েছে করোনা ভাইরাস। প্রশাসনের ব্যাপক তৎপরতা ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সুচিকিৎসায় সফলতা অর্জন করেছে। ইতিমধ্যে জেলার ১৩ উপজেলার মধ্যে হাওর অঞ্চলের ৪ টি উপজেলা কে করোনা মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। সেগুলো হলো: ইটনা, মিঠামইন, নিকলী ও অষ্টগ্ৰাম উপজেলা। এইসব ৪ উপজেলায় একটিও করোনা রোগী নেই বলে জানিয়েছেন কিশোরগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয়।

কিশোরগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে পাওয়া ১২ অক্টোবর রাতে সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী দেখা যায় করোনা মুক্ত হওয়া এই ৪ উপজেলার মধ্যে নিকলী উপজেলায় এই পর্যন্ত পরীক্ষা করা হয়েছে ৫১৫ জনের নমুনা। এদের মধ্যে সনাক্ত হয়েছেন ৫১ জন। সুস্থ হয়েছেন ৪৮ জন, মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। ইটনা উপজেলায় এই পর্যন্ত পরীক্ষা করা হয়েছে ২৬৮ জনের নমুনা। এতে সনাক্ত হয়েছে ৩৪ জন, সুস্থ হয়েছেন ৩৩ জন আর মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। মিঠামইন উপজেলায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৬২০ জনের নমুনা। এদের মধ্যে সনাক্ত হয়েছে ৪৩ জন, সুস্থ হয়েছেন ৪২ জন আর মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। অষ্টগ্ৰাম উপজেলায় এই পর্যন্ত পরীক্ষা করা হয়েছে ২৩৮ জনের নমুনা। এতে সনাক্ত হয়েছে ২১ জন। তবে এই উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কারো মৃত্যু হয়নি।

কিশোরগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে ১২ অক্টোবর রাতে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী জানা যায়, জেলায় মোট ২২৮৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৮৮২ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়। এতে ২৭৪২ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেছেন।  এই পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫১ জন। বর্তমানে জেলায় ৮৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী রয়েছে।