চাঁদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওসমান গনি পাটোয়ারী কর্তৃক করোনা প্রতিরোধে স্যানিটাইজার সামগ্রী বিতরণ

মোঃ আরিফ হোসেন : শতাব্দীর ভয়াল মহামারী ব্যাধি করোনা ভাইরাসের আক্রমণে বিশ্ববাসী কমবেশি সংক্রমিত। উন্নত দেশের রাষ্ট্রনায়ক সহ চিকিৎসকগণও এর থেকে রেহাই পায়নি। এ ব্যাধির বিধি নিষেধ বা কোয়ারেন্টাইন এর ফলে বিশ্বের দরিদ্র দেশগুলোর অবস্থা খুবই নাজুক। লকডাউনের জন্য বাংলাদেশেও করোনার প্রকোপে কারনে করুণভাবে দিনাতিপাত করছেন।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ও সাহসী পদক্ষেপের কারণে এর ভয়াল প্রতিরোধে দল-মত-নির্বিশেষে সরকারের বিধি-নিষেধের আওতায় থাকায় অনেকটাই নিরাপদে আছে বাংলাদেশ। অসহায় মানুষ গুলোর কথা চিন্তা করে ২৯ শে মার্চ রোববার চাঁদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওসমান গনি পাটোয়ারীর নেতৃত্বে জেলা পরিষদের সদস্যদের মাধ্যমে ৩০ হাজার সাবান ৩০হাজার মাস্ক ও কিছু নগদ অর্থসহ জেলাবাসীর মধ্যে অসহায়দের জন্য বিতরণ করা হয়।

এ সময় চাঁদপুর অনলাইন প্রেস ক্লাবের সভাপতি প্রভাষক ডাঃ শেখ মহসিন এর হাতেও অনলাইন সাংবাদিকদের সুরক্ষায় সাবান ও মাস্ক তুলে দেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। একই সাথে সামাজিক ব্যক্তিবর্গের মাধ্যমে বিতরনের জন্য সাবান ও মাস্ক প্রদান করা হয়। সংগঠন পর্যায় কমিউনিটিং পুলিশিং, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, ও স্কাউটদের মাঝে এবং অসহায় মানুষকে সুরক্ষার প্রত্যাশায় স্যানিটাইজার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। তিনি জেলাবাসীর উদ্দেশ্যে বিনয়ের সহিত বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে দশটি দিক নির্দেশনা দিয়েছেন তা যেন জন আমরা যথার্থভাবে পালন করি। বিভিন্ন দেশ থেকে যারা এসেছেন তারা যেন হোম কোয়ারেন্ট মেনে চলেন।

বিভিন্ন অঞ্চল থেকে যারা এসেছেন তারা নিজেকে, পরিবারকে, সমাজকে ও রাষ্ট্রকে রক্ষা করার জন্য সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী অন্তত ২৪টা দিন হোম কোয়ারান্টাইনে থাকুন। তিনি আরো বলেন মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধাগন আমাদের এই দেশকে পেতে যেমনি প্রাণপণ লড়াই করেছেন, এমনিভাবে আমাদের দেশের মানুষ গুলো রক্ষায় আমাদের দেশে ডাক্তারগন প্রাণপণ চেষ্টা করে চলেছে। তিনি বলেন আমাদের সরকারের মাননীয় মন্ত্রী, এমপি, জনপ্রতিনিধিগণ সহ পুলিশ, বিডিআর ও সেনাবাহিনী এক যুগে মহামারীর প্রতিরোধে কাজ করলে ইনশাল্লাহ আমরা সুরক্ষায় থাকবো।