চীনা বাহিনী ভারতীয়, যুদ্ধবিমান পাঠাল দিল্লি

অনলাইন ডেস্ক 
পশ্চিম লাদাখ সীমান্তে চীনা অবকাঠামো নির্মাণের খবরে যুদ্ধবিমান পাঠিয়েছে ভারত। বুধবার পর্বত বেষ্টিত ওই অঞ্চলটিতে যুদ্ধবিমান পাঠানো হয়। ভারতীয় সেনা সূত্র এএফপিকে বিষয়টি নিশ্চিত করে।

ভারতীয় সেনার বরাত দিয়ে বলা হয়, ১৫ জুন গালোয়ান উপত্যাকায় দুই দেশের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংর্ঘের পর ভারতীয় বেশ কয়েক কিলোমিটর ভূখণ্ড দখল করে চীনা বাহিনী। এখন পর্যন্ত তারা ওই জায়গাগুলো দখলে রেখেছে।

এদিকে বুধবার চীনা প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সিনিয়র কর্নেল উ কিয়া‌নএক বিবৃতিতে বলেন, গালওয়ানে চীনের সার্বভৌম অধিকার রয়েছে। বহু বছর ধরে সেখানে নজরদারি চালিয়ে আসছে চিনা বাহিনী। এ বছর এপ্রিল থেকে সেখানে একতরফাভাবে নির্মাণকাজ শুরু করে ভারতীয় সেনা, একাধিকবার তার প্রতিবাদ করে চীন।

এ ঘটনায় ভারতের পক্ষ থেকে চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে প্রতিবাদ জানানো হয়। গালওয়ান উপত্যাকার ওপর চীনের সার্বভৌমত্বের দাবিকে প্রত্যাখ্যান করে ভারত বলছে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় স্থিতাবস্থা পরিবর্তনের একতরফা প্রচেষ্টা গ্রহণ করা হবে না।

১৫ জুনের ঘটনার পর সামরিক অবকাঠামো নির্মাণের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে দিল্লি। এর আগে সোমবার দুই দেশের কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ১১ ঘণ্টা ধরে চলা বৈঠকে বুধবার সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। এতে বলা হয়, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা থেকে দুই দেশই সেনা সরিয়ে নেবে।

প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা লঙ্ঘন নিয়ে ১৫ জুন লাদাখে চীনা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে ভারতীয় জওয়ানদের। এতে ২০ ভারতীয় সেনাবাহিনী নিহত হন। তবে চীনের পক্ষ থেকে হতাহতের বিস্তারিত জানানো হয়নি।

সূত্র: এএফপি, টাইমস অব ইন্ডিয়া, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস