জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে স্বামী ও স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম

রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে স্বামী ও স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলা বামনী
ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে বুধবার সকালে। এ ব্যাপারে রায়পুর থানায় ঘটনার বিচার চেয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ঐ গ্রামের জয়নাল আবেদিন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বামনী ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের মৃত করিম বক্স হাওলাদারের পুত্র জয়নাল অবেদিন (৭০) একই গ্রামের মমিন মৃত মতিউর রহমানের ছেলে মমিন হোসেন (৫০) থেকে বিগত ০৫ বছর পূর্বে ৬ শতাংশ জমি খরিদসূত্রে মালিক হয়। তিনি দীর্ঘদিন থেকে ওই জমিতে বসত বাড়ী গাছপালা লাগিয়ে বসবাস করে আসছেন। হঠাৎ করে প্রতিপক্ষরা ওই জমিটি পুনরায় জোরপূর্বক হুমকি ধমকি ভয়ভিতি দেখিয়ে জয়নাল আবেদিনের পরিবারকে উচ্ছেদের পাঁয়তারা চালায়।
বিভিন্ন সময়ে প্রতিপক্ষের ওমর ফারুক ওরপে বাবু বহিরাগত লোকজন নিয়ে জয়নাল আবেদিনের বাগানে প্রবেশ করিয়া প্রকাশ্যে বিভিন্ন মাদক সেবন করে আসছে। এতে জয়নাল প্রতিবাদ জানালে তারা উত্তেজিত
হয়ে যায়, তাকে প্রাণনাশের হুমকি ধমকি প্রদান করে এবং জমি রেখে এলাকা চেয়ে পালিয়ে যেতে নির্দেশ দেন। নচেৎ প্রাণে হত্যা করে লাশ ঘুম করে ফেলবে হুমকি প্রদান করে। বুধবার সকালে ওমর ফারুক বাবু, মমিন
হোসেন, সেলিম হোসেন, বেলী বেগম ও শিউলি বেগম সহ অজ্ঞাত আরো ১০/১৫জন জয়নাল আবেদিনের তৈরিকৃত পাকের ঘরটি ভেঙ্গে ফেলে দিয়ে জমি দখলের পায়তারা চালায়, এতে খবর পেয়ে জয়নাল আবেদিন ও তার স্ত্রী
রেজিয়া বেগম প্রতিবাদ জানাইলে প্রতিপক্ষরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে স্বামী- স্ত্রীকে এলোপাতাড়ী কুপিয়ে মারাত্বক জখম করে। স্থানীয় লোকজন জখম প্রাপ্তদের উদ্ধার করে রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। তাদের মাথা
মুখমন্ডল সহ বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য তোফায়েল আহম্মেদ
ও লুৎফর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার বলেন, কৃষকের জমি দখলের পাঁয়তারাটি

দুঃখজনক, তাদেরকে মারাত্বকভাবে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। আমরা উদ্ধার
রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেছি।
যোগাযোগ করা হলে, রায়পুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল জলিল
বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে আইনগত প্রয়োজনীয়
ব্যবস্থা নেওয়া হবে।