তাড়াইলের সাংবাদিক ছাদেকুর রহমান রতনের অর্থায়নে ব্রিজের রেলিং বাঁশ দিয়ে মেরামত

রুহুল আমিন, তাড়াইল (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ কিশোরগঞ্জের তাড়াইল টু জাওয়ার সড়কে ফুলেশ্বরী খালের উপর ৩৫ বছর আগে নির্মিত ব্রিজটির এক পাশের রেলিং ভেঙ্গে গেছে প্রায় ১ বছর আগে। এখনো বিভিন্ন রকমের যানবাহন এই ব্রিজ দিয়ে পারাপার হচ্ছে। ফলে দূর্ঘটনা নিত্যদিনকার চিত্র হয়ে দাঁড়িয়েছে।    

জানা যায়, সোমবার ৩ মে (২০২০) সাংবাদিক ছাদেকুর রহমান রতন সে তাঁর নিজের অর্থায়নে ব্রিজের রেলিংটা বাঁশ দিয়ে মেরামত করে দিয়েছে। এসময় দেখা যায়, এলাকাবাসী ও পথচারীদের অনেকেই সাংবাদিকের দীর্ঘায়ূ কামনা করেন। উক্ত ব্রিজের ওপর দিয়েই ভাটি অঞ্চলের সাথে যোগাযোগ করে থাকে তাড়াইল উপজেলার মানুষ। তেমনিভাবে ভাটি অঞ্চলের মানুষ কিশোরগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে থাকে। 

ফুলেশ্বরী খালের উপর নির্মিত উক্ত ব্রিজটির রেলিং ভেঙ্গে যাওয়ায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো দূর্ঘটনা ঘটছে। ১ মে (২০২০) গত শুক্রবার সকাল ১০ টায় ছনাটি গ্রামের দিনমজুর জসিম (১৬) সাইকেল চালিয়ে ধান কাটার উদ্যেশে রওয়ানা দেয় জাওয়ার। পথিমধ্যে ব্রিজের উপর অটোরিকশাকে সাইট দিতেই নিচে পরে যায় সে। তখন পথচারীরা আহত জসিমকে উঠিয়ে তাড়াইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।
কর্তব্যরত ডাক্তার ফিরুজ মিয়া জানায়, দিনমজুর জসিমের কোমরের এক পাশের দুটি হাড় ভেঙ্গে গেছে। দু মাস তাকে বিশ্রামে থাকতে হবে। সাংবাদিক ছাদেকুর রহমান রতন ও সেকান্দরনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জিয়াউল হকসহ আরো অনেকেই প্রাথমিক চিকিৎসার কিছু ওষুধ কিনে দেয় তাকে।

উপজেলার জাওয়ার ইউনিয়নের ছনাটি গ্রামের শহিদুল হকসহ আরো অনেকেই বলেন, ফুলেশ্বরী নদীর ওপর নির্মিত ব্রিজটির এক পাশের রেলিং ভেঙে গেছে প্রায় এক বছর হয়। মালবাহী যানবাহন ও পথচারীরা প্রায় সময় দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। জাওয়ার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমানসহ ইউপি সদস্যরা সাময়িক মেরামতের জন্য কেউ এগিয়ে আসেনি। তিনি প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, আমাদের জোর দাবী অতিসত্বর ব্রিজটি সংস্কার কিংবা নতুন ব্রিজ নির্মাণ করা হউক।