দেবীদ্বার অক্সফোর্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ আবারও জিপিএ-৫ পেয়ে উপজেলার শীর্ষ স্থান

কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা দেবীদ্বারে ৪২১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পিইসি- এবতেদায়ী, জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার্থী- ১৯,৯৯৬, কৃতকার্য- ১৭,৯১৩ জন ছাত্র-ছাত্রী।

উপজেলার ৫৩ টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে জেডিসি ৭ হাজার ৯৬৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে কৃতকার্য ৬ হাজার ৮৩২ জন, পাশের হার ৮৫.৯৬%, এদের মধ্যে জি.পি.এ-৫ পেয়েছে- ১৩৭জন। শতভাগ পাশ করেছে নবিয়াবাদ উচ্চ বিদ্যালয় ও বানিয়াপাড়া জালাল উদ্দিন ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজ সহ ২টি। জি.পি.এ-৫’ প্রাপ্তদের মধ্যে প্রথম দেবীদ্বার অক্সফোর্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ১৮টি, দ্বিতীয় দেবীদ্বার মফিজউদ্দিন আহমেদ মডেল পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ১৬টি, তৃতীয় বড়শালঘর ইউএম,এ উচ্চ বিদ্যালয় ১৫টি এবং চতুর্থ দেবীদ্বার রেয়াজ উদ্দিন মডেল পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৪টি, অন্যান্য ধামতী হাবিবুর রহমান উচ্চবিদ্যালয় ১১টি, মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয় ১০টি, গোপালনগর উচ্চ বিদ্যালয় ৮টি, খলিলপুর ৬টি, মাশিকাড়া উচ্চ বিদ্যালয় ৫টি, রাজামেহার, নবিয়াবাদবাদ, জাফরগঞ্জ মাজেদা আহসান মূন্সী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪টি করে, বাকসার উচ্চ বিদ্যালয় ও দেবীদ্বার আজগর আলী মূন্সী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ৩টি করে, কুরছাপ, মোহাম্মদপুর এ,আর উচ্চ বিদ্যালয় ২টি করে এবং সূর্য্যপুর, বাঙ্গুরী, গঙ্গামন্ডল রাজ ইনিষ্টিটিউশন, ফুলতলী, ছোটনা, দুয়ারিয়া, এলাহাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়, আসাদনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১টি করে জিপিএ-৫ পেয়েছে।

তবে আব্দুল্লাহপুর হাজী আমির উচ্চ বিদ্যালয়, চান্দপুর মডেল টেকনিকেল হাইস্কুল, ভিরাল্লা এস,কে উচ্চ বিদ্যালয়, মারচাকান্দা জিয়াস্মৃতি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, মহেশপুর উচ্চ বিদ্যালয়, মুগসাইর-১১গ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়, আবিদ আলী হিলফুল ফুজুল উচ্চ বিদ্যালয়, ইউছুফপুর উচ্চ বিদ্যালয়, বল্লভপুর উচ্চ বিদ্যালয়, ফতেহাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়, মরিচাকান্দা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, বক্রিকান্দি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, চরবাকর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, তুলাগাঁও ডাঃ মহব্বত আলী উচ্চ বিদ্যালয়, প্রজাপতি ডিএল উচ্চ বিদ্যালয়, খয়রাবাদ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, বারুর আলী হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়, নূরপুর এমএম,আলী এ বারী উচ্চ বিদ্যালয়, ভানী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, বুড়িরপাড় উচ্চ বিদ্যালয়, সাইতলা জুনাব আলী উচ্চ বিদ্যালয়, বিহারমন্ডল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, জালাল উদ্দিন ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজ, রাধানগর উচ্চ বিদ্যালয়, বড়আলমপুর সরকারী মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়, চুলাশ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় সহ ২৮টি উচ্চ বিদ্যালয়ে একজনও জিপিএ-৫ পায়নি।

৩১টি জেডিসি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১হাজার ৯৪৫জনের মধ্যে কৃতকার্য ১হাজার ৫০০জন। পাশের হার ৭৭.১২%। শতভাগ পাশ করেছে ধামতী আলিয়া মাদ্রাসা তবে কোন জিপিএ-৫ নেই, ৩১টি মাদ্রাসার মধ্যে একমাত্র সুলতানপুর সিনিয়র মাদ্রাসায় ৩জন জিপিএ-৫ পেয়েছে।

৩২৩টি পিএসসি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৯হাজার ১৮৮ জন অংশগ্রহনকারীর মধ্যে ৮হাজার ৭২২জন কৃতকার্য হয়েছে। পাশের হার ৯৪.৯৩%। জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ৭২৬জন। তার মধ্যে ২০৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শতভাগ পাশ করেছে।১৪টি এবতেদায়ি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মোট ৮৮০জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৮৫৯জন কৃতকার্য হয়েছে, পাশের হার ৯৭.৫৮%। জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ৩৪জন।