নরসিংদীতে পৌর মেয়র এর ব্যক্তিগত উদ্যোগে ২৫ হাজার মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ

নরসিংদী প্রতিনিধি:

ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নরসিংদীতে পৌর মেয়র মো. কামরুজ্জামান  কামরুলের ব্যক্তিগত উদ্যোগে মধ্যবিত্ত্ব, নিম্ন মধ্যবিত্ত্ব, অসহায়, দুস্থ, কর্মহীন শ্রমিকসহ নানা শ্রেণী-পেশার মানুষের মাঝে উন্নতমানের খাবার বিতরণ করেন।

সোমবার (২৫ মে) সকালে পৌর শহরের শাপলা চত্বর এলাকায় ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ২৫ হাজার মানুষের মাঝে মোরগ-পোলাও, ডিম, মিষ্টি, ফিরনী ও পানিসহ খাবার বিতরণের কর্মসূচির  উদ্বোধন করেন পৌর মেয়র।

সারা দেশে চলমান করোনা সংকট মোকাবেলায় ১৭ মার্চ থেকে নানামুখী কর্মসূচি গ্রহণ করেন নরসিংদী পৌর মেয়র ও শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. কামরুজ্জামান কামরুল। এসব কর্মসূচির একটি একসঙ্গে নরসিংদী পৌর এলাকার ৯টি ওর্য়াডে ২৫ হাজার মানুষকে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে উন্নতমানের খাবার বিতরণ করেন।

এর আগে তিনি করোনা সংকটে মধ্যবিত্ত্ব, নিম্ন মধ্যবিত্ত্ব, অসহায়, দুস্থ, কর্মহীন শ্রমিকসহ নানা পেশা-শ্রেণীর ২০ হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। পাশাপাশি পুরো রমজান মাসব্যপী প্রতিদিন ৫ হাজার মানুষকে ইফতার করানো ছিল গৃহীত কর্মসূচির মধ্যে উল্লেখযোগ্য।

এছাড়া পৌরবাসীর মধ্যে ৫০ হাজার মাস্ক, ২৫ হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার, জেলার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা এবং নিরাপত্তার জন্য ২ হাজার পার্সোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই) বিতরণ করেন।

সারা দেশে যখন করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকে ধারাবাহিকতভাবে তাঁর চলমান এসব মানবিক কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানিয়েছেন জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, জেলা  আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা।

পৌর মেয়র মো. কামরুজ্জামান কামরুল বলেন, নরসিংদী হচ্ছে শিল্পসমৃদ্ধ জেলা বর্তমানে চলমান করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে এখানকার শিল্পকারখানা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে এখানকার বিভিন্ন পেশার শ্রমজীবীরা। এর মধ্যে মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্তে‌র সংখ্যাই বেশি।

দীর্ঘদিন ধরে সারাদেশে চলমান লকডাউনে তাদের পরিবারে খাদ্য সংকট দেখা দেওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রীশেখ হাসিনার মানবিক নির্দেশনা মেনে আমার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে এসব কর্মসূচি গ্রহণ করেছি।ইনশাআল্লাহ যতদিন করোনার প্রকোপ নরসিংদীতে থাকবে ততদিন আমার সাধ্যমত তাদের পাশে থাকব।