নরসিংদীতে ভুয়া ডিবির পরিচয়ে প্রবাসী অপহরণ, ৫ অপহরণকারী গ্রেফতার, প্রবাসী উদ্ধার

নরসিংদী প্রতিনিধিঃ– নরসিংদীতে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচয়ে শাহীন মিয়া (৪০) নামে এক সৌদী আরব প্রবাসীকে অপহরণের অভিযোগে অপহরণকারী চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার ও অপহৃত প্রবাসীকে উদ্ধার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। সোমবার (৩ মার্চ) বিকালে শহরের বানিয়াছল এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃতরা হলো- ১) নরসিংদী পৌর শহরের বানিয়াছল এলাকার মৃত. সুলতান মিয়ার ছেলে তোফাজ্জল হোসেন (৩৪) ও
২) মৃত. মতিউর রহমানের ছেলে রাসেল চৌধুরী (৩৫), ৩) মাধবদীর ভগিরথপুর এলাকার মৃত. আঃ মজিদ এর ছেলে সানোয়ার হোসেন (৪১), ও
৪) মৃত. আঃ হালিম এর ছেলে মোশারফ মিয়া (৩৮) এবং ৫) ব্রাহ্মনবাড়ীয়া নবীনগরের কুলাশিং এলাকার আঃ সালাম এর ছেলে রুবেল মিয়া (৩৪)।

নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এর পরিদর্শক রুপণ কুমার সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গোয়েন্দা পুলিশ জানায়, রবিবার (২ মার্চ) রাত ১১টার দিকে ৭/৮ জন ব্যক্তি নরসিংদী সদর উপজেলার শীলমান্দি গ্রামের রবিউল্লাহর ছেলে ছুটিতে আসা সৌদী আরব প্রবাসী শাহীন মিয়ার বাড়িতে হানা দেয়। এসময় তারা নিজেদের গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচয় দিয়ে দরজা খুলতে বলেন। প্রবাসী শাহীন মিয়া দরজা খুলে দিলে তারা ঘরে ঢুকে তল্লাশি করে ২টি মোবাইল সেটসহ শাহীন মিয়াকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায় এবং তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পরিবারের সদস্যদের বলে যায়।

পরবর্তীতে অপহরণকারী দল শাহীনকে মারপিট করে তার পরিবারকে ফোনে কান্নার শব্দ শুনিয়ে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে। এ ঘটনায় সোমবার (৩ মার্চ) অপহৃত শাহিনের পরিবারের সদস্যরা নরসিংদীর পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদারের নিকট মৌখিকভাবে ঘটনাটি অবহিত করেন। পরে পুলিশ সুপারের নির্দেশে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এর উপপরিদর্শক নূরে আলম হোসাইন ও মোস্তাক আহম্মেদ এর নেতৃত্বে একটি গোয়েন্দা দল তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অপহরণকারী চক্রের অবস্থান সনাক্ত করেন। পরে বিকাল সাড়ে ৪টায় শহরের বানিয়াছল মহল্লার তোফাজ্জল হোসেনের বাসায় অভিযান পরিচালনা করে অপহৃত প্রবাসী শাহীন মিয়াকে উদ্ধার করা হয় এবং ঘটনায় জড়িত ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

এসময় অপহরণকারী ভুয়া ডিবি পরিচয়দানকারীদের দখল হতে শাহীনের বাসা থেকে লুন্ঠিত ২টি মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে নরসিংদী সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।