নাটোর, র‍্যাব-৫ এর অভিযানে আলোচিত মান্দা থানার ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামী মামুন সরদারকে গ্রেফতার

রুহুল আমীন খন্দকার বিশেষ প্রতিনিধি :: র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব) প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরণের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। র‍্যাব নিয়মিত জঙ্গী, সন্ত্রাসী, সংঘবদ্ধ অপরাধী, মাদক, অস্ত্রধারী অপরাধী, ভেজাল পণ্য, ছিনতাইকারীসহ ধর্ষণের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে আসছে।
এরই ধারাবাহিকতায় সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্প, র‍্যাব-৫, রাজশাহীর একটি অপারেশনিক দল অদ্য শুক্রবার ১৩ মে, ২০২২ ইং তারিখ সকাল ০৯-টা ৩০ ঘটিকায় বিশেষ গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে নওগাঁ জেলার মান্দা থানাধীন ফেরিঘাট এলাকা থেকে কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ফরহাদ হোসেন, কোম্পানী উপ-অধিনায়ক সহঃ পুলিশ সুপার মোঃ রফিুকর ইসলাম দ্বয়ের নেতৃত্বে একটি গ্রেফতার অভিযান পরিচালনা করা হয়।
নওগাঁ জেলার মান্দা থানার মামলা নং-৪২, তারিখ- ২০/০৪/২০২২, ধারা- ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সং-০৩) এর ৯(১) এর এজেহার নামীয় পলাতক আসামী ১। মোঃ মামুনুর রশিদ সরদার (৪৮), পিতা- মৃত আছির উদ্দিন, সাং- চকচোয়ার (দহপাড়া), থানা- মান্দা, জেলা- নওগাঁ। র‍্যাব-৫ এর এই চৌকস দল উল্লেখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে আসামীকে গ্রেফতার করা হয়। 
ঘটনার বিবরণে প্রকাশ :  যে, গত ২৪ মার্চ ২০২২ তারিখ রাত্রী অনুমান ০৯.০০ ঘটিকায় মামলার আসামী ১। মোঃ মামুনুর রশিদ সরদার (৪৮), পিতা- মৃত আছির উদ্দিন, সাং- চকচোয়ার (দহপাড়া), থানা- মান্দা, জেলা- নওগাঁমামলার বাদিনীর বসত বাড়ীর শয়ন ঘরে প্রবেশ করে ভিকটিমকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে জোরপুর্বক ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে ভিকটিম মান্দা থানায় আটককৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন। 
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ মামুনুর রশিদ সরদার (৪৮) ভিকটিমকে ধর্ষণ করার বিষয়টি স্বীকার করে উপস্থিত সাক্ষী গণের সম্মুখে জবানবন্দি প্রদান করে। আটককৃত অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতার পূর্বক নওগাঁ জেলার মান্দা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, উপরোক্ত ঘটনায় র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব) এর বিরতিহীন চলমান অভিযানে আলোচিত নওগাঁ জেলার মান্দা থানার ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামী মামুন সরদারকে গ্রেফতার বিষয়টি আজ শুক্রবার (১৩ মে, ২০২২ ইং) তারিখ বেলা ১১-টা ৩৭ ঘটিকার দিকে সিপিসি-২ নাটোর, র‍্যাব-৫, কতৃক ই-মেইল যোগে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই গণমাধ্যম কর্মীকে নিশ্চিত করা হয়েছে। 
ইতোমধ্যেই র‍্যাবের পক্ষ থেকে অপরাধীদের কঠোর হুশিয়ারী দিয়ে জানানো হয় যে, দেশের সার্বিক শান্তি শৃঙ্খলা বজায়ের লক্ষ্যে অবৈধ অস্ত্র-মাদকদ্রব্য উদ্ধার থেকে শুরু করে সকল প্রকার অরাজকতাকে রুখে দিতে র‍্যাব বদ্ধপরিকর। এ ছাড়াও র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়নের জিরো টলারেন্স ঘোষণার পাশাপাশি অপরাধীদের বিরুদ্ধে তাদের অভিযান গুলো চলমান রেখেছেন।