নৌকা মার্কা আমার একার নয়, নৌকা বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার প্রতীক অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েল

মোঃ আরিফ হোসেন:- চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ একটি সু-সংগঠিত দল। বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ডাঃ দীপু মনি এমপির অবর্তমানে, ৩টি ইউনিয়ন পরিষদ, সদর উপঝেলা ও হাইমচর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কো-অর্ডিনেটর হিসেবে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জে আর ওয়াদুদ টিপু দায়িত্ব পালন করেছেন।

আমরা সবগুলো নির্বাচনেই সফলতা পেয়েছি। আগামী পৌরসভা নির্বাচনে তিনি এই দায়িত্ব পালন করবেন। আশাকরি আমরা সফলতা পাব। আপনারা সকলে আমাদের সহযোগিতা করবেন। আমাদের মধ্যে কোন দ্বিধা দ্বন্দ্ব নেই।

বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষ্যে আওয়ামী লীগর এক যৌথ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

চাঁদপুর একটি শান্তির শহর। আমরা সকলে মিলে অনেক কষ্ট করে এই শহরের শান্তি নিশ্চিত করেছি। এই শহরের মানুষ খেয়ে থাকুক, কিংবা না খেয়ে থাকুক অথবা কাজ না থাকুক তারা চায় শান্তি ও নিরাপত্তা।

তিনি বলেন, পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে শান্তির বিঘ্ন ঘটানো যাবে না। তাহলে মানুষ আমাদের বিরুদ্ধে চলে যাবে। মানুষের মন মানসিকতা না বুঝে এখানে কেউ রাজনীতি করতে পারবে না। আজকে কিছু স্লোগান হয়েছে আমাদের বিরুদ্ধে। আমি এই ধরনের ঘটনাকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমাদের দলের মধ্যে কিছু অপশক্তি প্রবেশ করেছে। তাদেরকে চিহ্নিত করতে হবে। আমরা কারা, আমরা কি উড়ে এসেছি। আমরা দীর্ঘদিন রাজনীতি করে আজকের এই অবস্থানে এসেছি।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল।

নৌকা মার্কার মনোনীত প্রার্থী, জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেন, আগামী ২৯ তারিখ চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনী যুদ্ধে বৃহত্তর আওয়ামী লীগ পরিবারের নেতৃত্বে আমরা বিজয়ী হবো ইনশাআল্লাহ। আমাদের অনেকেই নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হতে চেয়েছিলাম। যারা আগ্রহ প্রকাশ করেছেন, তারা সকলেই আমার চাইতে বয়সে বড় এবং রাজনীতিতেও অনেক আগ থেকে। আমার সাথে সকলেরই সম্পর্ক ভালো। আমি এমন কোন কাজ করিনি যাতে আওয়ামী পরিবারের সম্মান নষ্ট হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, মনোনয়ন দলীয় একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে হয়ে থাকে। সেই প্রক্রিয়ায় হয়তো দলের প্রধান ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন। নৌকা মার্কা আমার একার নয়, নৌকা মার্কা হচ্ছে বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার প্রতীক। এই মার্কা বৃহত্তর আওয়ামী লীগের। বর্তমান মেয়র ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির উন্নয়ন এর ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকা বিজয়ের বিকল্প নেই। আওয়ামী পরিবারের সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকা মার্কার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে।

সভায় চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডাঃ জে আর ওয়াদুদ টিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পটওয়ারী, অ্যাড. মজিবুর রহমান ভুঁইয়াসহ জেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ জেলা যুবলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল ও মোহাম্মদ আলী মাঝে সহ অনেক নেতা উপস্থিত ছিলেন।

এর পূর্বে নৌকা মার্কার প্রার্থী জিল্লুর রহমান জুয়েল চাঁদপুরে এসে পৌঁছালে তার সমর্থক ও আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দরা তাকে আনন্দ মিছিল ও ফুল দিয়ে বরণ করেন। পুরো শহরে আনন্দ মিছিলে মুখোরিত হয়ে উঠে।