পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত: ১ 

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে পুকুরে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় মোহাম্মদ সবুজ (৩৮) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন।

তাকে বাঁচাতে গেলে তার মা হাজেরা খাতুন ও ভাই বাবুল হোসেনকেও পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। মঙ্গলবার বিকেলে সদর উপজেলার নলডগী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সবুজ স্থানীয় জয়নাল আবদীনের ছেলে।

এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। আহতদের একই হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, স্থানীয় নলডগী গ্রামের জয়নাল আবদীনের বাড়ির সবুজ গং ও জলিল গংদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে দুটি পুকুরের মালিকানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দিন সবুজ পুকুরে মাছ ধরতে গেলে জলিল গংরা তার ওপর হামলা চালায়। এ সময় তাকে লাঠি দিয়ে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করে তারা। তাকে বাঁচাতে গেলে তার মা ও বড় ভাই বাবুলকেও পেটান তারা। পরে সদর হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক সবুজকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ভাই বাবুল জানান, সবুজ আমাদের নিজস্ব পুকুরে মাছ ধরতে গেলে একই বাড়ির জলিল ও তার ছেলে রশিদ ও খুরশিদসহ ৫/৬ জন তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। আমরা বাঁচাতে গেলে আমাদেরকেও মারধর করে তারা।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ওসি জসীম উদ্দিন জানান, মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে মারামারিতে ১ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় ১ জনকে আটক করা হয়েছে। অন্যদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে