পুঠিয়া-তাহেরপুর সড়কের পাশে মরা গাছ যেন মরণ ফাঁদ’ যে কোন সময় ঘটতে পারে মারাত্মক অঘটন

রুহুল আমীন খন্দকার, বিশেষ প্রতিনিধি :: রাজশাহীর পুঠিয়া-তাহেরপুর ব্যস্ততম সড়কের পাশে বিশাল মারা একটি বিশাল আকৃতির কড়ই গাছ যেন মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে। যে কোন সময় অথবা ঝড়-বাতাসে মরা গাছটি সড়কের মধ্যে হটাৎ ভেঙ্গে পড়ে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে। এতে পথচারীসহ সড়কের যানবাহনে চলাচলকারী যাত্রীরা দুর্ঘটনার শিকার হতে পারে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।

সড়কটিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন চলাচল করছে পথচারীরা। সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, পুঠিয়া উপজেলা হতে তাহেরপুর (১৭ কি.মি)-রের সড়কটিতে বিভিন্ন প্রকার ফলদ ও বনজ গাছ রয়েছে।

উপজেলা সদর হতে প্রায় (আড়াই কি.মি.) দুরুত্বে গোবিন্দনগর জামতলা নামক স্থানে সড়কের পাশে বিশাল আকার কড়ই গাছটি প্রায় বছর খানিক আগে মারা গেছে। বর্তমানে গাছটির ঝড়ে ডালপালা মরে শুকিয়ে দাড়িয়ে আছে। যে কোন সময় উক্ত গাছের ডালপালা ভেঙ্গে পড়ে ঘটতে পারে মারাত্ম দুর্ঘটনা।

স্থানীয়রা এ ঝঁকিপূর্ণ গাছটি দ্রুত অপসারণের দাবি জানিয়েছে। তা না হলে যে কোন সময় গাছ ও গাছের ডালপালা ভেঙ্গে সড়কে পড়ে পথচারী ও যানবাহন চলাচলকারীদের প্রাণহানির মত ঘটনা ঘটতে পরে।

এ বিষয়ে রাজশাহী জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেড আব্দুল জলিলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের জানান, গাছটি অচিরেই সরকারী নিয়ম অনুযায়ী অপসারণ করা হবে। আমরা ইতোমধ্যেই অবগত হয়েছি। এছাড়াও অন্যান্য অঞ্চলের এই রকম গাছের বিষয়েও খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে।