প্রযুক্তি নিয়ে বিস্ময়কর তথ্য

ডেক্স রিপোর্ট:

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের এ সময়ে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই প্রযুক্তির সুবিধা উপভোগ করছে মানুষ। প্রযুক্তি দুনিয়ায় এমন সব ব্যাপার রয়েছে যা ইতঃপূর্বে হয়তো অনেকে শুনেনি। এগুলো এমনই যে, প্রথম শোনায় স্রেফ অবিশ্বাস্য মনে হতে পারে। আজকের আয়োজনে এমনই কিছু তথ্য জানাব।

বর্তমানে বিশ্বে শতকরা ৯০ ভাগেরও বেশি মুদ্রা ডিজিটাল। এর মধ্যে রয়েছে, ক্রেডিট কার্ড, ডেবিট কার্ড, অনলাইন কেনাকাটা এবং ক্রিপ্টোকারেন্সি। কাগুজে নোট আর ধাতব মুদ্রা আকারে আছে শতকরা আট ভাগ।

নিনটেন্ডো শুরুতে প্লেয়িং কার্ড তৈরি করত।বিশ্বের বৃহত্তম ভিডিও গেম কোম্পানি নিনটেন্ডো। এর প্রধান কার্যালয় জাপানের কিয়োটোতে। ভিডিও গেমের যুগ শুরু হওয়ার অনেক আগেই প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এটি। প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে জাপানি এ প্রতিষ্ঠানটি প্লেয়িং কার্ড বা তাস তৈরি করত। ১৯৮৯ সালে কোম্পানিটির যাত্রা শুরু হলেও প্রতিষ্ঠানটি প্রথম ভিডিও গেম তৈরি করে ১৯৭৮ সালে।

বাইনারিতে গুগল প্রথম টুইট করেছিল।প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগল ২০০৯ সালে প্রথম টুইট করে। আর টুইটটি বাইনারিতে। সে সময় বেশিরভাগ টুইটার ব্যবহারকারীই বুঝতে পারেননি ওই টুইটের অর্থ কি। বাইনারি টুইটটিকে ইংরেজিতে অনুবাদ করলে ওই টুইটের অর্থ দাঁড়ায় ‘আই অ্যাম ফিলিং লাকি!

গুগলে প্রতিদিন সাড়ে তিনশ কোটি সার্চ হয়

পুরো বিশ্বের মোট ইন্টারনেট ট্রাফিকের শতকরা ৭.২ ভাগ আসে গুগল সার্চ থেকে। আর সংখ্যার হিসাবে এ অনুসন্ধান মোট সাড়ে তিনশ কোটি।

স্যামসাংয়ের যাত্রা মুদি দোকান হিসাবে

ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট খ্যাত স্যামসাংয়ের যাত্রা ১৯৩৮ সালের মার্চ মাসে। দক্ষিণ কোরিয়ায় জন্মগ্রহণ করা লি বিয়ং চল এটি প্রতিষ্ঠা করেন। ডেইগ নামক শহর থেকে তিনি ৪০ জন কর্মী নিয়ে একটি নুড্লস তৈরির কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেন। তারা নুড্লস তৈরির পাশাপাশি পুরো শহরজুড়ে বিভিন্ন গ্রোসারি পণ্য সরবরাহের কাজ করত। এর পর ষাটের দশকে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স শিল্পে প্রবেশ করে।

নোকিয়া শুরুতে টয়লেট পেপার বিক্রি করত

‘নোকিয়া করপোরেশন’ ফিনল্যান্ডভিত্তিক বহুজাতিক টেলিযোগাযোগ সম্পর্কিত কোম্পানি। এটি পৃথিবীর বৃহত্তম মোবাইল ফোন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান। নোকিয়া বহনযোগ্য ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস প্রস্তুত করে থাকে, প্রধানত মোবাইল ফোন। ১২০টি দেশে নোকিয়াতে ১,৩২,০০০-এরও বেশি লোক কর্মরত। অথচ জনপ্রিয় মোবাইল ফোন কোম্পানি নোকিয়া শুরুতে টয়লেট পেপার বিক্রি করত। এ ছাড়াও টায়ার, কম্পিউটার এবং অন্যান্য ইলেকট্রনিক্স পণ্যও ছিল তাদের ব্যবসায়।

বিশ্বের প্রথম মোবাইল ফোন মটোরোলা

এটা সর্বজন স্বীকৃত যে বিশ্বের প্রথম মোবাইল ফোন নির্মিত হয় মটোরোলা। প্রতিষ্ঠানটিতে কর্মরত ড. মার্টিন কুপার এবং জন ফ্রান্সিস মিচেলকে প্রথম মোবাইল ফোনের উদ্ভাবকের মর্যাদা দেওয়া হয়ে থাকে। তারা ১৯৭৩ সালের এপ্রিলে প্রথম সফলভাবে একটি প্রায় ২ কেজি (৪.৪ পাউন্ড) ওজনের হাতে ধরা ফোনের মাধ্যমে কল করতে সক্ষম হন। মার্টিন কুপার হ্যান্ডহেল্ড মোবাইল ফোন সেট ব্যবহার করে প্রথম ফোন কল করেছিলেন। কলের অপর প্রান্তে ছিলেন প্রতিদ্বন্দ্বী বেল ল্যাবসের (এখনকার এটিঅ্যান্ডটি) ড. জোয়েল এস এঙ্গেল।

শতকরা ৩৫ ভাগ ওয়েবসাইট চলে ওয়ার্ডপ্রেসে

ওয়ার্ডপ্রেস একটি মুক্ত সফটওয়্যার, ডাউনলোড, ইনস্টল, ব্যবহার এবং তা পরিবর্তন করা যায়। আপনি যে কোনো ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য এটি ব্যবহার করতে পারেন। এটি ওপেন সোর্স কোড সফটওয়ার, আপনি যে কোনো সময় মোডিফাই/পরিবর্তন করে ব্যবহার করতে পারেন। ২০২০ সালের হিসাবে, সাড়ে ৪৫ কোটিরও বেশি ওয়েবসাইট তাদের কনটেন্ট ব্যবস্থাপনার জন্য ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে। এর মানে হচ্ছে, ওয়েবসাইটের বাজারে ওয়ার্ডপ্রেসের দখল শতকরা ৩৫ ভাগ!

সব সময় অতীতে থাকি আমরা

বিচিত্র সব তথ্য জেনে যখন অবাক হচ্ছেন, তখন আসলে আপনি অবাক হচ্ছেন ৮০ মিলিসেকেন্ড আগে জানা তথ্য নিয়ে।

ইন্দ্রিয় থেকে পাওয়া তথ্য আমদের অনুভব করতে সময় লাগে ৮০ মিলিসেকেন্ড এমনটাই জানা গেছে, বেইলোর কলেজ অফ মেডিসিনের এক গবেষণা থেকে।