ফরিদগঞ্জে ভাঙ্গা রাস্তা মেরামত করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো ইছাপুরা গ্রামবাসী

ডেস্ক রিপোর্ট: ফরিদগঞ্জ উপজেলার পাইকপাড়া (দ:) ইউনিয়নের ইছাপুরা গ্রামের রাস্তাটির বেহাল দশা দীর্ঘদিন ধরে, রাস্তা যাতায়াতের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। এতে করে সাধারণ মানুষ ভোগান্তির কথা মনে করে। “দৈনিক ইলশেপাড়” পত্রিকায় ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি সাংবাদিক রুহুল আমিন খান স্বপনের প্রচেষ্টায় ও এলাকা বাসীর আর্থায়নে এবং রমজান আলী লিটন ও ইউপি মেম্বার আকবর হোসেন বতুর তত্ত্বাবধানে মেরামত করছে রাস্তাটি।

জানা যায়, ফরিদগঞ্জ উপজেলার পূর্বাঞ্চলের মানুষের যাতায়াতের জন্য ইছাপুরা-সাহাপুর হয়ে ফরিদগঞ্জের রাস্তাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ইউনিয়নের কবি রুপসা, বালিছাটিয়া ও নদনা গ্রামের জনগনের পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদে যাতায়াতের প্রধান রাস্তা এটি।

সিএনজি চালক মো. সাইফুল ইসলাম, আরিফ হোসেন, রিক্সা চালক মো. সাহাজান চৌধুরী, দেলোয়ার হোসেন, আনোয়ার হোসেন সুট্রি, আব্দুল খালেক, সমাজ সেবক শিক্ষক মো. আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া, বিল্লাল পাটওয়ারী, হাছান, কাজল, সিপাত,সাদ্দাম হোসেন ও স্কুল কলেজের ছাত্ররা কেউ ইট ভাঙছে, কেউ এক স্থান থেকে অন্য স্থানে নিয়ে গর্ত ভরাট করছে বালু দিয়ে। দু’দিনের কঠোর পরিশ্রমের পর মানুষের যাতায়াতের উপযোগী হচ্ছে রাস্তাটি।

স্থানীয় সাংবাদিক রুহুল আমিন খান স্বপন বলেন, ‘রাস্তাটি মেরামতের দরকার কারন ঈদে শহরের মানুষ গ্রামে আসবে। তাই দীর্ঘদিন ধরে প্রায় চলাচলের অনুপযোগী রাস্তাটি স্থানীয় গ্রামবাসীর সহযোগিতায় চলাচলযোগ্য করা হয়েছে। বাইরে থেকে ইটা ও বালিমাটি নিজেদের খরচে এবং স্থানীয় মেম্বার আকবর হোসেন বতুর গাড়ি দিয়ে এনে রাস্তায় ফেলে বর্তমানে চলাচল যোগ্য করেছেন। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় অর্নাস ৪র্থ বর্ষের ছাত্র মো. হাবিব খান যানান তারা খুশি হয়ে নেমে পড়ে মেরামত করতে। এখন রাস্তাটি মোটামোটি চলাচল উপযোগী।