ফিনল্যান্ড প্রতিনিধিদল ও ড্যাফোডিল পরিবারের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা বিষয়ক আলোচনা সভা

0
16

শিক্ষাঙ্গন ডেস্ক: কৌশলগত সম্পর্ক উন্নয়নের লক্ষ্যে ড্যাফোডিল পরিবার ও ফিনল্যান্ডের প্রতিনিধি দলের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা বিষয়ক এক আলোচনা সভা আজ সোমবার (১৮ নভেম্বর) ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ৭১ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভায় ফিনল্যান্ডের প্রতিনিধি দলের পক্ষে ফিনল্যান্ডের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইউনিট ফর এশিয়ার প্রকল্প সহকারী নিনা কারকি, ফিন পার্টনারশিপের প্রোগ্রাম ডিরেক্টর বিরজিৎ নিভালা ও ফিন পার্টনারশিপের প্রোগ্রাম অফিসার প্যাট্রিক ব্রেডবাকা উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে ড্যাফোডিল পরিবারের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল পরিবারের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মাহবুব উল হক মজুমদার, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল হক এবং ড্যাফোডিল পরিবারের প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ নূরুজ্জামান, বাংলাদেশ ফিনল্যান্ড চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইনডাস্ট্রিজের পরিচালক ইকবাল শরীফসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিন ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

বিরজিৎ নিভালা তাঁর বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ একটি সুন্দর দেশ। এই দেশের মানুষগুলোর মনও সুন্দর এবং তারা অত্যন্ত পরিশ্রমী। তাদের পরিশ্রমের কারণে বাংলাদেশের অর্থনীতি খুব দ্রুত বিকশিত হচ্ছে। এসময় তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন যে, ফিনল্যান্ডের প্রচুর সুযোগ রয়েছে এখানে বিনিয়োগ করার।

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির কর্মকা-ে মুগ্ধতা প্রকাশ করে বিরজিৎ নিভালা বলেন, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অত্যন্ত ভালো কাজ করছে, বিশেষ করে উদ্যোক্তা উন্নয়ন, তথ্য-প্রযুক্তি এবং খাদ্য ও পুষ্টি সেক্টরে অত্যন্ত প্রশংসনীয় অবদান রাখছে। এ সময় তিনি ড্যাফোডিল পরিবারকে ধন্যবাদ জানান এবং অদূর ভবিষ্যতে ড্যাফোডিলের সঙ্গে একযোগে কাজ করার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ড্যাফোডিল পরিবারের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান বলেন, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সম্পদ হচ্ছে এর বিপুল পরিমাণ জনসংখ্যা। বাংলাদেশ মোটেও দরিদ্র দেশ নয় বরং এর ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি দরিদ্র। এখানে প্রয়োজন ফিনল্যান্ডের মতো দক্ষ ব্যবস্থাপক। এ সময় তিনি ফিনল্যান্ডকে বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার আহ্বান জানান।
আলোচনা সভায় ড্যাফোডিল পরিবার সম্পর্কে একটি তথ্যচিত্র উপস্থাপন করেন রিসার্চ ও আইকিউএসির ডেপুটি ডিরেক্টর নাফিস ইমতিয়াজ। একইসঙ্গে ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে একটি ভিডিও চিত্রও উপস্থাপন করা হয়।