‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ প্রতিবন্ধী কিশোরী গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি আকরাম হোসেন নিহত হয়েছে। এসময় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়।

শনিবার (১১ জুলাই) রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার অর্জুনতলা ইউনিয়নের উত্তর মানিকপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত আকরাম একই উপজেলার অর্জুনতলা ইউনিয়নের উত্তর মানিকপুর গ্রামের গ্রামের আবদুল গফুর’র ছেলে।

এসময় ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়। আহতরা হলেন, এএসআই লোকেন মহাজন, পুলিশ কনস্টেবল এমরান ও জিয়া। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি অস্ত্র, ২ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করে।

সেনবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুল বাতেন মৃধা এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেনবাগের আলোচিত প্রতিবন্ধী গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি পলাতক আকরামকে গ্রেফতার করতে তিনি সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্সসহ অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশ উপজেলার অর্জুনতলা ইউনিয়নের উত্তর মানিকপুর গ্রামে পৌঁছলে আকরাম ও তার সহযোগীরা অতর্কিত ভাবে পুলিশের ওপর গুলি ছুঁড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুঁড়লে আকরামের সহযোগীরা পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আকরামকে উদ্ধার করে। পরে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, আহত পুলিশ সদস্যরা সেনবাগ সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহতের লাশ বর্তমানে নোয়খালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।