বরগুনায় আরেক জিনের বাদশা ৩দিনের রিমান্ডে

মো: আসাদুজ্জামান: কথিত জিনের বাদশা রহিমকে (৩২) রোববার গাইবান্দা থেকে গ্রেফতার করেছে বরগুনা ও গাইবান্দার পুলিশ। সোমবার সকালে বরগুনা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিট্রেট আদালতে রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ সোলায়মান ৭দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানী শেষে আদালতের বিচারক মোঃ সিরাজুল ইসলাম ৩দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, ১৮ জুলাই বরগুনা শহরের এক গৃহবধূর কাছ থেকে মোবাইল ফোনে প্রতারণা করে ৩০ ভরি স্বর্ণ ও সাড়ে ৫ লাখ টাকা নিয়ে যায় প্রতারক চক্র।

এ ঘটনায় গৃহবধূর স্বামী হাফিজুর রহমান বাদী হয়ে বরগুনা থানায় ১৯ জুলাই মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রধান আসামী আজমল হককে গত ১ অক্টোবর গাইবান্ধা পুলিশের সহায়তার গ্রেফতার করে বরগুনা থানার পুলিশ। ৭ অক্টোবর আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. সোলায়মান।

চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সিরাজুল ইসলাম গাজী ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। আজমলের স্বীকারোক্তি মোতাবেক গাইবান্ধার গবিন্দগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করা হয়। সে গাইবান্ধার গবিন্দগঞ্জ উপজেলা বিশ্বনাথপুর গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে প্রতারনাসহ ৮ টি মামলা রয়েছে বিভিন্ন থানায়।