বাপ-দাদার ঐতিহ্যই আমাদের প্রেরণা: উপম ও উপা,,,,

নিজস্ব প্রতিবেদক ; চাঁদপুর শহরের ঐতিহ্যবাহী পরিবার, আগেকার জমিদারি প্রথার ষোল আনার থেকে ৭ আনার অংশিদার, অর্থাৎ সাতানী পাটোয়ারী বাড়ি। সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম হাবিবুল্লাহ পাটোয়ারীর দৌহিত্র, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক অন্যতম সদস্য।

জান্নাতুল বাকি বিল্লাহ( উপম) পাটোয়ারী ও তার সহদর বোন উম্মে হানি উপা (বার এট ল, অধ্যায়নরত)।

ভয়াল মহামারী করোনাভাইরাসে কর্মহীন অসহায় কিছু মানুষ আছে যারা কারো কাছে চেয়ে খেতে পারে না, তারা এমন ৫০০ পরিবারকে চাল, ডাল, তেল ইত্যাদি খাদ্য সামগ্রী সেবার তরে, উপহার হিসেবে প্রদান করেন।

তারা জানান আমরা ভাই বোন মিলে কিছু অর্থ বিশেষ প্রয়োজনে সঞ্চয় করেছিলাম, বিবেক তারণা দিলো যে,আমাদের মরহুম দাদা চেয়ারম্যান ছিল।
বাবাও জেলার চেয়ারম্যান, তারা বংশ পরস্পরায় জনসেবায় নিয়োজিত ছিলেন।
জনস্বার্থে কাটিয়ে দিয়েছেন তাদের জীবন।
ফলে আমদের মা ” উম্মে কুলসুম উর্মির সাথে আমাদের পরিকল্পনার বিষয়টি জানিয়ে, পরামর্শ চাইতে গেলে, বাবা ও মা শুনে খুব খুশি হয়েছেন।
বাবা ও মা আমাদের বলেন মানুষগুলো ভালো ও সুখে থাকলেই আমরা ভাল থাকি।
তাদের খুশিতে আমরা খুশি থাকি।
এ কারণেই এই উদ্যোগটি আমরা গ্রহণ করেছি।
তাদের জমানো টাকায় খাদ্য সামগ্রী ক্রয় করে নিরবে ও আঁধারে, ঘরে ঘরে গিয়ে ভাই বোন মিলে খাদ্য সামগ্রী গুলো,
তাদের পক্ষ থেকে উপহার হিসেবে অসহায়দের হাতে হাতে তুলে দেন।

এ ভাই-বোন দু’জন শহরের কিছু লোকজনকে আবারো জানান দিলেন যে মানুষ, মানুষের জন্য।
এই করুন সময়ে অসহায়দের নামের তালিকা করে যাচাই-বাছাই তে যারা সহযোগিতা করেছেন, তাদের প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসা এবং কৃতজ্ঞতা জানান জান্নাতুন বাকী বিল্লাহ ( উপম) পাটোয়ারী ও উন্মে হাণী (উপা) তারা মানবতার তরে আমরণ অসহায় মানুষের পাশে ও তাদের মাঝেই থাকবেন বলে জানান তাদের বড় আব্বা ছিলেন চাঁদপুর শহরের ঐতিহ্যবাহী আহম্মাদীয়া ফাযিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মরহুম আহাম্মদ উল্লাহ পাটোয়ারী।