বাবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশ যুগপূর্তি‌তে ২য় পূনর্মিলনীর বর্ণাঢ্য আয়োজন

নিউজ ডেস্ক : চাঁদপুর সদর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ বাবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের দশ যুগপূর্তি ও দ্বিতীয় পুনর্মিলনী উৎসব বর্ণাঢ্য আয়োজনের মাধ্যমে উদ্বোধন হয়েছে।

পুনর্মিলনী উৎসবের প্রধম দিন ২৭ ডিসেম্বর বিকাল সাড়ে ৩টায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গন থেকে অতিথি, শিক্ষক, প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে বিশাল বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়ক হয়ে পুলিশ লাইনস্ পর্যন্ত গিয়ে পুনরায় ঘুরে বিদ্যালয় মাঠে এসে শেষ হয়।

এরপর জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে জাতীয় পতাকা , অনুষ্ঠান উদযাপন ও বিদ্যালয় পতাকা উত্তোলণ করেন যথাক্রমে সাবেক সচিব মমিন উল্যাহ পাটওয়ারী বীর প্রতিক, প্রাক্তন কৃতী শিক্ষার্থী ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান ড. মোঃ সবুর খান ও প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ ও প্রাক্তন কৃতী শিক্ষার্থী মোঃ মোশারেফ হোসেন।

প্রথম দিনের মূখ্য আলোচক ড. মোঃ সবুর খানসহ অতিথিবৃন্দ বেলুন ও শান্তির প্রতিক পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন। বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে যারা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের স্মরণে একমিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।
সন্ধ্যায় আলোচনা পর্বে উদযাপন পরিষদের আহবায়ক বাবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের গভর্নিংবডির সভাপতি এবং প্রাক্তন কৃতী শিক্ষক ও শিক্ষার্থী মোঃ শহীদ উল্লাহ মাস্টার এর সভাপতিত্বে ও প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মো. মোশারেফ হোসেন, প্রাক্তন শিক্ষার্থী মাকছুদুর রহমান ও মনির গাজীর যৌথ সঞ্চালনায় মূখ্য আলোচকের বক্তব্য রাখেন ড. মোঃ সবুর খান।

তিনি বক্তব্যে বলেন, এই বিদ্যালয় অধ্যয়নকালে খেলা-ধুলার চর্চা আমার জীবনে অনেক কাজে লেগেছে। আমার সাথে যারা ব্যাটমিন্টন খেলেছেন তারা অনেকেই এখানে উপস্থিত আছেন। আমরা বিভিন্ন রকমের খেলা-ধুলার মাধ্যমে সময় পার করতাম। কিন্তু আজকের তরুন প্রজন্ম খেলা-ধুলা করতে না পারার কারণে বিশাল একটি অংশ মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছে। তারা হতাশা গ্রস্থ হচ্ছে এবং তাদের নেতৃত্বগুলো বিকশিত হচ্ছে না।

এইসময় ড. মো. সবুর খান বিদ্যালয়কে মু‌ক্তি‌যোদ্ধা মরহুম কালু শে‌খ শিক্ষা বৃ‌ত্তির জন্য ২ লক্ষ টাকা ও বিদ্যাল‌য়ে প্র‌তিমা‌সে;সা‌হিত্য সাংস্কৃ‌তিক প্র‌তি‌যো‌গিতার মাধ্য‌মে বিজয়ী‌দের পুরষ্কার প্রদা‌নের জন্য ১০ লাখ টাকা অনুদান প্রদান করার প্রতিশ্রুতি দেন।
সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রাক্তন শিক্ষার্থী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) রফিক উল্যা, প্রাক্তন শিক্ষার্থী প্রফেসর ডা. মো. হাবিবুর রহমান।

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাবেক সচিব মমিন উল্যাহ বীর প্রতিক ও চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক চাঁদপুর বার্তার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক শহীদ পাটওয়ারী।
এরপর প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের হাতে উপহার সমাগ্রী তুলেদেন অতিথিবৃন্দ এবং আয়োজকদের পক্ষ থেকে প্রাক্তন শিক্ষার্থী ড. মো. সবুর খানকে সম্মননা স্মারক প্রদান করেন।