ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশী বাঁধায় এবি পার্টির সভা পন্ড

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: শুক্রবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশী বাঁধায় আমার বাংলাদেশ (এবি) পার্টির আলোচনা ও মতবিনিময় সভা হতে পারেনি। দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা এবি পার্টির উদ্যোগে শহরের ক্বারী চাইনিজ সেন্টারে এ আলোচনা ও মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছিল।

এতে যোগ দিতে সকালেই ঢাকা থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসেন এবি পাটির্র আহবায়ক (সাবেক সচিব ও এনবিআর চেয়ারম্যান) এ এফ এম সোলাইমান চৌধুরী এবং সদস্য সচিব মুজিবুর রহমান মঞ্জু। কিন্তু নির্ধারিত স্থানে সভা করতে সংশিষ্ট আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অনুমতি না মেলায় স্থানীয় একটি বেসরকারি ক্লিনিকে জড়ো হন দলের নেতাকর্মীরা।

কিন্তু সেখানেও কোন প্রকার সভা-সমাবেশ করতে বাধা দেয় পুলিশ। পরে শহরের একটি রেস্টুরেন্টে উপস্থিত হয়ে জেলায় কমর্রত সংবাদকর্মীদের সাথে কথা বলেন এবি পাটির্র কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। 

এসময় এবি পার্টির সদস্য সচিব মুজিবুর রহমান মঞ্জু বলেন, মুক্তিযুদ্ধের অঙ্গীকার বাস্তবায়নের লক্ষ্যেই এবি পাটির্র পথচলা। দলের বর্তমান কর্মসূচি হচ্ছে করোনা মহামারি থেকে মানুষকে সচেতন করা এবং সহযোগিতা করা। এরই অংশ হিসেবে দলের আহবায়ক ও সদস্য সচিবসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সফর করেছেন উলেখ করে মুজিবুর রহমান মঞ্জু জানান, করোনা পরিস্থিতিতে এবং মানুষকে কিভাবে সচেতন ও সাহায্য করা যায় এনিয়ে আজ জেলার নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল। কিন্তু পুলিশের বাধার কারণে তা সম্ভব হয়নি। তিনি পুলিশী বাধার তীব্র নিন্দা জানান। পরে এবি পাটির্র আহবায়ক এ এফ এম সোলেমান চৌধুরী বলেন, সাম্য, মানবিক মর্যাদা এবং সামাজিক সুবিচার নিশ্চিত করে কল্যাণ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে এবি পার্টি কাজ করবে।

তিনি এজন্য সবার সহযোগিতা কামনা করেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন এবি পাটির্র সহকারী সদস্য সচিব মোঃ নাজমুল হুদা অপু ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা সমন্বয়ক ইব্রাহিম খান সাদাত।