ভঙ্গী নৃত্য শিল্পালয়’র ৬ষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্টানে তরুণদের মাদকসেবী ও সন্ত্রাসী না হওয়ার আহবান

রুহুল আমীন খন্দকার, ব্যুরো প্রধান : তরুণদের মাদকসেবী ও সন্ত্রাসী না হয়ে সংস্কৃতিমনা ও প্রগতিশীল হয়ে গড়ে উঠার জন্য আহবান জানিয়েছেন আলোচনা সভার বক্তারা। সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘ভঙ্গী নৃত্য শিল্পালয়’র ৬ষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ‘নৃত্যশৈলী’তে বক্তব্য প্রদানকালে এ আহবান জানান অনুষ্ঠানের বক্তার।

‘সুস্থ ধারার সাংস্কৃতিক চর্চা করি’ অপসংস্কৃতি মুক্ত সমাজ গড়ি’ এ স্লোগানকে সামনে রেখে ‘ভঙ্গী নৃত্য শিল্পালয়’র আয়োজনে শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) বিকাল ৪টায় রাজশাহী মহানগরীর পাঠানপাড়াস্থ লালন শাহ মুক্তমঞ্চ প্রাঙ্গণে সংগঠনটির ৬ষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে ‘নৃত্যশৈলী’ শিরোনামে আড়ম্বর সাংস্কতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বিশেষ অবদান রাখায় নগরীর ১৭জন ব্যাক্তিকে ভঙ্গী নৃত্য শিল্পালয় রাজশাহীর পক্ষ থেকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, আজকে দেশব্যাপী এক শ্রেণির তরুণ-তরুণীরা মাদকের মাদকতায় আসক্ত। মাদকসেবী তরুণ সমাজ নানা অন্যায় অপকর্ম তথা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িয়ে পড়ছে। যা আমাদেরসহ আগামী প্রজন্মের জন্য আশনিসংকেত। সেই অবস্থায় ভঙ্গী নৃত্য শিল্পালয় তরুণ সমাজকে মাদক ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড থেকে দূরে রেখে সংস্কৃতিমনা ও প্রগতিশীল মানবিক মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে। যা সত্যিই প্রসংশনীয়।’

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ রাজশাহী মহানগরের সভাপতি রকি কুমার ঘোষ। ভঙ্গী নৃত্য শিল্পালয় রাজশাহীর সভাপতি মোঃ সাইফুল ইসলাম সাগরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, মেট্রো ডায়াগনস্টিক সেন্টার রাজশাহীর পরিচালক মোঃ সাইফুল্লাহ শান্ত, রাজশাহীর বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী মোস্তাফিজ রহমান সুমন, রিমঝিম সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী রাজশাহীর পরিচালক মোঃ ফাইসাল মাহমুদ ফরিদ।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার ঘনিষ্ট সহচর এএইচএম কামারুজ্জামান হেনাসহ জাতীয় চার নেতার প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করে অনুষ্ঠানে সংগঠনের নৃত্যশিল্পীরা ‘দে তালি বাঙ্গালী’ শিরোনামে একটি মনোজ্ঞ নৃত্য পরিবেশন করেন। এছাড়াও অনুষ্ঠানে নগরীর সুবিধাবঞ্চিত বস্তি শিশুরা মনোমুগ্ধ নৃত্য পরিবেশন করে। নৃত্যে অংশগ্রহণ করেন সুবিধাবঞ্চিত বস্তি শিশু সোনিয়া, মিম ও তমাসহ অন্যান্যরা।

অনুষ্ঠানে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন, রাজশাহীর তরুণ সংগঠন ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ-ইয়্যাস। এছাড়াও আলভি সাউন্ড সিস্টেম, রিভী লেদার হাউস, এসএকে ইভেন্ট এন্ড মাল্টিমিডিয়া প্রোডাকশন এবং উত্তরণ সেভিং এন্ড ক্রেডিট কো অপারেটিভ সোসাইটি লিঃ সহযোগিতা করে। অনুষ্ঠানের ফটোগ্রাফি পার্টনার ছিল ড্রিম মেকিং প্রোডাকশন।

তরুণ সংগঠন ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ-ইয়্যাস’র সভাপতি শামীউল আলীম শাওনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, ভঙ্গী নৃত্য শিল্পালয় রাজশাহীর সহসভাপতি মোঃ রনি ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ সানি ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, সুস্থ ধারার সাংস্কৃতিক চর্চা করি, অপসংস্কৃতি মুক্ত সমাজ গড়ি’ এ প্রত্যায়ে এগিয়ে চলা রাজশাহীর সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘ভঙ্গী নৃত্য শিল্পালয়’র বিগত ২০১৪ সালের ২৯ ডিসেম্বর থেকে রাজশাহীতে তরুণদের মাদক ও সন্ত্রাস থেকে দূরে রেখে সংস্কৃতিমনা মানবিক মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করে চলেছে। গত ২০১৯ সালের ২৯ ডিসেম্বর সাংস্কৃতিক সংগঠনটি ৫ বছর পেরিয়ে ৬ বছরে পর্দাপন করেছে।