ভালুকায় চাঁদা না দেওয়ায় সাংবাদিককে মাদক দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার আওলাতলী গ্রাম এলাকায় মাইটিভির শ্রীপুর প্রতিনিধি সোহেল রানা ও তার এক বন্ধু ঘুরতে আসলে, স্থানীয় কয়েক জন বখাটে যুবক তাদের আটক করে।পরে তাদের কাছে ৫০হাজার টাকা চাঁদা দাবি করলে চাঁদা না দেওয়ায় ৫০০ মিলি চুলাই মদ দিয়ে ভালুকা মডেল থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

আটককৃত সাংবাদিক সোহেল রানা মাই টিভির শ্রীপুর উপজেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত ছিল। তিনি শ্রীপুর উপজেলার চন্নাপাড়া গ্রামের কাছম আলীর ছেলে। মদ্যপ অবস্থায় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়ার খবর পেয়ে মাই টিভি কর্তৃপক্ষ তাকে উপজেলা প্রতিনিধি থেকে অব্যহতি দিয়ে টিভিতে স্টীকারদেন।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, সোহেল রানা তাঁর এক বন্ধুকে নিয়ে আওলাতী পাদ্রীপাড়া এলাকায় ঘুরতে আসে। সেখান থেকে ঘুরে যাওয়ার সময় স্থানীয় ইন্নস আলীর ছেলে মামুন ও পান্না আফাজের ছেলে জাহাঙ্গীর সহ ৬/৭ জন বখাটে যুবক তাদেরকে আটকিয়ে পঞ্চাশ হাজার টাকা চাদা দাবি করে। সোহেল ওই টাকা দিতে অস্বিকার করলে মামুন থানা পুলিশকে খবর দেয় পরে সোহেলের বন্ধুকে ১০,০০০ টাকায় ছেড়ে দেয় ও সোহেলকে এক পুটলা চুলাই মদ দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, মঙ্গলবার রাতে মদ সহ সোহেল রানাকে আটক করে এলাকাবাসী। পরে লোকজন থানায় খবর দিলে সোহেল রানাকে আটক করে। মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দিয়ে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।