মতলব উত্তরে ভূয়া মাতৃত্বকালীন ভাতা উত্তোলন করছেন ইউপি সদস্য হোসনেয়ারা

মতলব উত্তর ব্যুরো : মতলব উত্তর উপজেলার বাগানবাড়ি ইউপির সংরক্ষিত নারী (৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ড) সদস্য মোসা. হোসনেয়ারা বেগমের বিরুদ্ধে ভূয়া মাতৃত্বকালীন ভাতা ভোগের অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরে ১২৬নং তাছলিমা আক্তার, স্বামী – হাসানুজ্জামান মাতৃত্বকালীন ভাতাগ্রহীতা, কিন্তু তাছলিমার স্বামী প্রায় ৪বছর যাবৎ থেকে প্রবাসে অবস্থান করছেন তাদের দ্বিতীয় সন্তানের বয়স ৬বছর চলছে। অনুরূপ ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে ১৫০নং সাবিনা আক্তার পিতা সমির উদ্দিন, স্বামী – আলআমিন ছোট কিনাচক দম্পতির স্বামীও  ৪বছর যাবৎ থেকে প্রবাসে কর্মরত।

তাদের দ্বিতীয় সন্তানের বয়সও ৬বছর। কিন্তু উপরোক্ত নারীদের নামে মিথ্যা তথ্য দিয়ে তাদের নামে প্রেগনেন্সি ভাতা উত্তোলন করে সংরক্ষিত নারী সদস্যা নিজেই ভোগ করছেন। এই নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে রসালো আলোচনা ও বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য করতে শোনা যাচ্ছে।

অভিযোগ সূত্রে আরো জানা যায়, সরকারী সকল সুযোগ সুবিধা উপকারভোগীদের টাকার বিনিময়ে দিয়ে থাকেন। ইউপি চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের বোকা বানিয়ে তিনি গত কয়েক বছর যাবত মাতৃত্বকালীন ভাতা নিজেই ভোগ করছেন।

এছাড়া এই নারী ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে রয়েছে নানা অভিযোগ।এ ব্যাপারে গত ৬জানুয়ারী ২০২০ইং তারিখে ছোট কিনাচক গ্রামের মো. কামরুল হাসান বাবুল মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

সদয় অবগতির জন্য সচিব, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, সংসদ সদস্য চাঁদপুর-২, সচিব সমাজকল্যাণ ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, জেলা প্রশাসক চাঁদপুর, চেয়ারম্যান দুর্নীতি দমন কমিশন, পরিচালক দুর্নীতি দমন কমিশন, ইউএনও মতলব উত্তর, চেয়ারম্যান মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মতলব উত্তর থানা বরাবরে অনুলিপি প্রেরণ করা হয়।