মাস্কের ব্যবহার ও স্বাস্থ্যবিধি না মানলে লকডাউন: জেলা প্রশাসক!

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্: স্বাস্থ্যবিধি না মানলে লকডাউন। কারন, বেশিরভাগ মানুষের মাঝে মাস্ক ব্যবহারে অনিহা ভাব দেখা গেছে। মানছেন না শারিরিক দুরত্ম। অন্যদিকে জেলায় করোনা সংক্রমণ আবার বেড়েছে। এই প্রেক্ষাপটে মাস্কের ব্যবহার ও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণে এবং জনসচেতনতার লক্ষে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সরকারি নির্দেশনা কঠোরভাবে পালনের নির্দেশ দিয়েছেন, জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জনা খান মজলিশ।


বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় তিনি হাজীগঞ্জ উপজেলার সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়কালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের (ইউএনও ও সহকারী কমিশনার (ভূমি)) এই নির্দেশনা দেন। এ সময় তিনি বলেন, মাস্কের ব্যবহার ও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে না পারলে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাবে। এতে লকডাউনের বিকল্প থাকবেনা। আর লকডাউন হলে, সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।


উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় জেলা প্রশাসক আরো বলেন, উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ বির্নিমানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের সকল সেক্টরে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে। এর মধ্যে অন্যতম মানবিক কাজ হচ্ছে, ভূমিহীন ও গৃহহীনদের সরকার জমিসহ বাড়ি করে দেয়া। অপরদিকে ধর্মীয় স্থাপত্যশৈলির অনত্যম নির্দশন হিসেবে দেশে ৫৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণ কাজ করছে।


সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সরকারের এই উন্নয়ন কাজগুলো জনগণের সামনে তুলে ধরতে হবে। কারণ, সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে আমরা এই কাজগুলো বাস্তবায়ন করছি। আমাদের প্রতিটি বিভাগের কার্যক্রম সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশসহ সোশ্যাল মিডিয়ায় (ফেসবুক) দিতে হবে। এতে করে উন্নয়নমূলক কাজ সর্ম্পকে জনগণ অবহিত হবে। অপরদিকে আমাদেরও জবাবদীহিতা নিশ্চিত হবে। আমরা যদি আমাদের দায়িত্বগুলো সঠিকভাবে পালন করি, তাহলে জনদূর্ভোগ কমে আসবে।


উপজেলা ই-সেন্টারে এই মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মো. মাইনুদ্দিন। মতবিনিময় সভার আগে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কানিজ ফাতেমার পরিচালনায় ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তাদের হাতে সরকারি ‘ল্যাপটপ’ তুলে দেন, জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ। এরপর তিনি রাজারগাঁও ইউনিয়ন ভূমি অফিসের নব-নির্মিত ভবনের উদ্বোধন করেন। এ ছাড়াও তিনি হাজীগঞ্জ থানা পরিদর্শন করেন।


অনুষ্ঠানগুলোতে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.এস.এম সোয়েব আহমেদ চিশতী, হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক মুরাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মির্জা শিউলী পারবিন মিলি, পৌর প্যানেল মেয়র-১ মোহাম্মদ জাহিদুল আযহার আলম বেপারী।

এ সময় সরকারি দপ্তরের সকল কর্মকর্তা, হাজীগঞ্জ প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দসহ জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।