রমজানে ৫ হাজার মানুষকে ইফতার বিতরণ করেন নরসিংদীর পৌর মেয়র

নরসিংদী প্রতিনিধি : পবিত্র মাহে রমজানে শুরু থেকে প্রতিদিন ৪ থেকে ৫ হাজার মানুষকে ইফতার দিচ্ছেন নরসিংদীর পৌর মেয়র ও শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. কামরুজ্জামান কামরুল। ইফতারে থাকছে ভুনা খিচুরি, ডিম ভুনা ও সবজি। প্রতিদিন শহরের প্রধান ১২টি মোড়ে ইফতার দেয়া হয়।

নরসিংদী পৌরসভা কার্যালয় ও শহর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা জানান, করোনা সংকট মোকাবেলায় ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে গত ১৭ মার্চ থেকে পৌর মেয়র মো. কামরুজ্জামান কামরুল ব্যক্তিগত উদ্যোগে প্রায় ৫০ হাজার মাস্ক, ২০ হাজার  হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হ্যান্ডয়াশ ও সাবান বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেন।


এছাড়া করোনা মোকাবেলায় নরসিংদী জেলার চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশদের সুরক্ষা এবং নিরাপত্তার জন্য ২ হাজার পার্সোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট (পিপিই) দিয়েছেন।

পাশাপাশি গত ১ এপ্রিল থেকে পৌর এলাকার নিম্নবিত্তসহ বিভিন্ন পেশার দুঃস্থ, অসহায় ২০ হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া পৌর এলাকার যেসব মধ্যবিত্ত পরিবারে খাদ্যসামগ্রী সংকট রয়েছে; তাদের জন্য খোলা হয়েছে দুটি হটলাইন নম্বর (০১৯৪৬ ২৯৫৩৩৩, ০১৯৬২ ৫৩৮৩২৩)।

এ নম্বরে ফোন করলেই গোপনে মেয়রের লোকজন ওই বাসায় পৌঁছে দিচ্ছেন বিনামূল্যে খাদ্যসামগ্রী।

পৌর মেয়র মো. কামরুজ্জামান কামরুল বলেন, নরসিংদী হচ্ছে শিল্পসমৃদ্ধ জেলা। চলমান করোনার প্রাদুর্ভাবে এখানকার শিল্পকারখানা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছে এখানকার বিভিন্ন পেশার শ্রমজীবীরা। এরমধ্যে মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্তদের সংখ্যাই বেশি। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় করোনা সংকট মোকাবিলায় নানামুখী উদ্যোগ নিয়েছি।

রমজানের সাধারণ মানুষের ইফতারের করানোর বিষয়ে মেয়র বলেন, রমজানে প্রতিদিন গড়ে ৪ থেকে ৫ হাজার মানুষের মধ্যে ইফতার সরবরাহ কার্যক্রমটি হাতে নিয়েছি। যে কেউ ইফতার হিসেবে গ্রহণ করতে পারবে অথবা কেউ রাতের খাবার হিসেবেও গ্রহণ করতে পারবে। আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, সেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সাথে আমি নিজেও প্যাকেট করে থাকি। ইফতারের কার্যক্রমটি পুরো রমজান মাসব্যাপী আমরা চালিয়ে যাব। সেভাবেই প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।