রাজশাহীতে প্রকৌশলীকে আহত করা ঠিকাদারকে কালো তালিকাভুক্ত করার দাবিতে মানববন্ধন


রুহুল আমীন খন্দকার: বিশেষ প্রতিনিধি: রাজশাহী গণপূর্ত কার্যালয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী দেলওয়ার হোসেনকে (২৮), পিটিয়ে আহত করা ঠিকাদারকে কালো তালিকাভুক্ত করার দাবি জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার (১৮ই আগস্ট) বেলা ১১টা ৩০ মিনিটের দিকে রাজশাহী গণপূর্ত কার্যালয় চত্বরে আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ থেকে এ দাবি জানানো হয়। বাংলাদেশ পিডব্লিউডি ডিপ্লোমা প্রকৌশলী সমিতি এ কর্মসূচির আয়োজন করেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, অনৈতিক সুবিধা দেয়ার প্রস্তাব প্রত্যখ্যান করে প্রকৌশলীরা যখনই নিম্নকাজের প্রতিবাদ করেন তখনই প্রভাবশালী ঠিকাদাররা তাদের ওপর চড়াও হয়। অনেক জায়গায় এ রকম ঘটনা ঘটেছে। লোক লজ্জায় প্রকৌশলীরা সেসব ঘটনা চেপে যান।

কিন্তু এ রকম অবস্থা চলতে পারে না। এখন থেকে যে ঠিকাদারই প্রকৌশলীকে লাঞ্ছিত করবেন তার লাইসেন্স বাতিলসহ তাকে কালো তালিকাভুক্ত করতে হবে। একইসঙ্গে তারা প্রকৌশলী দেলওয়ার হোসেনের ওপর হামলাকারী ঠিকাদার শাহাবুল মঞ্জু লিটনের ‘সাফির ইঞ্জিনিয়ার অ্যান্ড বিল্ডার্সের’ লাইসেন্স বাতিলসহ প্রতিষ্ঠানটির চলমান সকল কাজের কার্যাদেশ বাতিল করার দাবি জানান।

প্রসঙ্গত, রাজশাহী গণপূর্ত কার্যালয়-২ এর উপসহকারী প্রকৌশলী দেলওয়ার হোসেনের অফিস কক্ষেই সোমবার (১৭ আগস্ট) তার ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। শাহাবুল মঞ্জু লিটন ও আতিকুর রহমান আতিক নামের দুই ব্যক্তি এই প্রকৌশলীকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন। পরে তাকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

উক্ত হামলাকারী শাহাবুল মঞ্জু লিটন ও আতিকুর রহমান আতিক নগরীর সাহেববাজার এলাকার আবুল হোসেন নামে এক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি হিসেবে প্রকৌশলীর কার্যালয়ে গিয়েছিলেন। ঠিকাদারী এই প্রতিষ্ঠানটি রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা ভূমি অফিস নির্মাণের কাজ করছে।

সিডিউল অনুযায়ী কাজ না করা এবং নিম্মানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহারের কারণে ঘটনার আগের দিন রোববার প্রকৌশলী দেলওয়ার হোসেন কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দিয়ে ছিলেন। আর এ কারণে অফিসে গিয়ে তার ওপর হামলার চালায় তারা। পরে পুলিশ তাদের আটক করে। এ নিয়ে রাজশাহী গণপূর্ত বিভাগ-২ এর উপবিভাগীয় প্রকৌশলী ইফতেখায়ের আলম একটি মামলাও করেন।

এই হামলার প্রতিবাদেই মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পিডব্লিউডি ডিপ্লোমা প্রকৌশলী সমিতির জেলা শাখার সভাপতি মো: ছাইদুজ্জামান। পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মো: আয়াতুল্লাহ।

সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ গণপূর্ত অধিফতর শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের জেলা শাখার সভাপতি বাবর আলী, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবীর স্বপন, ইন্সটিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের (আইইডিবি) কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক আবদুল নোমান, জেলার সহসভাপতি মেরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মেরাজুল আলম, কাউন্সিলর মোখলেসুর রহমানসহ বিভিন্ন কর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দরা।