রাজশাহীতে মেট্রোপলিটন এর ৪’টি বিভাগে স্বাক্ষরিত হলো ২০২১-২২ এর বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি!

রুহুল আমীন খন্দকার, বিশেষ প্রতিনিধি : রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ৪ টি বিভাগের সাথে সংশ্লিষ্ট থানার মধ্যে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এ.পি.এ) ২০২১-২০২২ স্বাক্ষরিত হয়। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ, ২০২১ রূপকল্প এবং টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এস.ডি.জি) বাস্তবায়নের লক্ষে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রনীত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে আজ বৃহস্পতিবার (৩ জুন) রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের চারটি ক্রাইম বিভাগ যথাক্রমে, বোয়ালিয়া, মতিহার, শাহমখদুম, কাশিয়াডাঙ্গা এর সংশ্লিষ্ট থানার সাথে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এ.পি.এ) স্বাক্ষরিত হয়। 


এ চুক্তিতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের আওতাধীন থানার কৌশলগত উদ্দেশ্যেসমূহ, এসকল কৌশলগত উদ্দেশ্যে অর্জনের জন্য গৃহিত কার্যক্রম এবং এসকল কার্যক্রমের ফলাফল পরিমাপের কর্মসম্পাদন সূচক ও লক্ষ্য মাত্রাসমূহ উল্লেখ রয়েছে।


বোয়ালিয়া বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার (বোয়ালিয়া) মোঃ সাজিদ হোসেন বোয়ালিয়া মডেল থানা, রাজপাড়া থানা ও চন্দ্রিমা থানার অফিসার ইনচার্জদের সাথে দুপুর সাড়ে ১২ টায় চুক্তি স্বাক্ষর করেন এবং মতিহার বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার (মতিহার) বিভূতি ভুষণ বানার্জী মতিহার থানা, কাটাখালি থানা ও বেলপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জদের সাথে আজ দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে চুক্তি স্বাক্ষর করেন।


শাহমখদুম বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার (শাহমখদুম) জনাব মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম শাহমখদুম থানা, এয়ারপোর্ট থানা ও পবা থানার অফিসার ইনচার্জদের সাথে দুপুর ২টায় চুক্তি স্বাক্ষর করেন এবং কাশিয়াডাঙ্গা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার (কাশিয়াডাঙ্গা) মোঃ মনিরুল ইসলাম কাশিয়াডাঙ্গা থানা, কর্ণহার থানা ও দামকুড়া থানার অফিসার ইনচার্জদের সাথে বেলা সাড়ে ১২ ঘটিকায়  চুক্তি স্বাক্ষর করেন।


সরকারি কর্মকান্ডের স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা বৃদ্ধি, সম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতকরণ এবং প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা উন্নয়নের লক্ষে সরকারি কর্মসম্পাদন ব্যবস্থাপনা পদ্ধতির আওতায় বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি ( এপিএ)।