রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ভারতীয় এক নারীর মৃত্যু

রুহুল আমীন খন্দকার, বিশেষ প্রতিনিধি : রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে এক ভারতীয় নারীর মৃত্যু হয়েছে। এতে করে এলাকায় করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক দেখা দেয়। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই ওই নারীর মৃত্যু হয়। পরে চিকিৎসকদের মুখে মৃত্যুর বিস্তারিত কারন শুনে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১১ মার্চ উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়নের গণকের ডাইং গ্রামের মৃতঃ দুখু আলীর বাড়িতে বেড়াতে আসে তার মেয়ে নবিজা বেগম (৬০)। সোমবার ২৩শে মার্চ ২০২০ ইং ভোর ৫ টার দিকে নবিজান বেগমের মৃত্যু হয়। এ খবর পেয়ে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আবু তালেব সাংবাদিকদের জানান, নবিজানের আগের চিকিৎসা পত্র ও পরীক্ষা-নিরীক্ষার রিপোর্ট এবং পরিবারের তথ্য অনুযায়ী নবিজান বেগম হৃদরোগে আক্রান্ত ছিল। আর সেই কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে বলেই আমাদের ধারনা। মৃত্যুর আগে নবিজান বেগম শুধুমাত্র বমন করে সে নিয়মিত হৃদরোগের ওষুধ সেবন করতেন। এটি কোনভাবেই করোনা ভাইরাসে সংক্রামিত হয়ে মৃত্যু নয়।

এ বিষয়ে গোদাগাড়ী দেওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আখতারুজ্জামান বলেন, নবিজান বেগম ভারতের উত্তর প্রদেশের শিবধাত গ্রামের মহিবুলের সঙ্গে বিয়ে হয়। ভারতীয় পাসপোর্ট নিয়ে বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসে নবিজান বেগম। তার মৃত্যু হৃদরোগে হওয়ার কারণে সোমবার দুপুর ১২ টার দিকে লাশ দাফন করা হয়। ফলে করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোন কারন নেই।