রাজশাহীর বাগমারা’র সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপকসহ চার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা

রুহুল আমীন খন্দকার: বিশেষ প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারা থানার ভবানীগঞ্জ সোনালী ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপকসহ তিন সিকিউরিটি গার্ডের বিরুদ্ধে রাজশাহীর বিজ্ঞ ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত-২ মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। মামলাটি দায়ের করেন উপজেলার অর্জনপাড়া মদিনাতুল উলুম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বঘোষিত ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) ড. রফিকুল ইসলাম। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী (১৭ নভেম্বর) ২০২০ ইং উভয় পক্ষকে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
আদালতের মামলা সূত্রে জানা যায়, গত (৮ অক্টোবর) ২০২০ ইং দুপুর আড়াইটার দিকে অর্জনপাড়া মদিনাতুল উলুম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) ড. রফিকুল ইসলাম প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের লক্ষে (৩৪০০১৩৮৭ নম্বর) হিসাব থেকে টাকা উত্তোলনের জন্য সোনালী ব্যাংক ভবানীগঞ্জ শাখায় যান।


ওই সময় ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক আহম্মেদ তারিক হাসানের সাথে ভিসি রফিকুল ইসলামের বাগ-বিতান্ডা হয়। ভিসি রফিকুল ইসলাম উত্তেজিত হলে ব্যাংকের সিকিউরিটি গার্ডেরা তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ব্যাংক থেকে বের করে দেয়। বিষয়টি তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সকলকে অবহিত করেন। কোথাও কোন বিচার না পেয়ে আদালতের আশ্রয় নেন বলে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের জানান। এছাড়াও তাকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিচ্ছে বলে এজাহারে উল্লেখ করেছেন।
এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সোনালী ব্যাংক ভবানীগঞ্জ শাখা ব্যবস্থাপক আহম্মেদ তারিক হাসান জানান, কাউকে ভয়ভীতি দেখানোর প্রশ্নই উঠেনা। এছাড়াও অর্জনপাড়া মদিনাতুল উলুম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে কোন হিসাব নম্বর নেই। অথচ তিনি সব সময় ব্যাংকে এসে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কাজের বিঘ্ন সৃষ্টি করেন। ওই সব কারনে সিকিউরিটি গার্ডের সদস্যরা তাকে ব্যাংকে ঢোকতে দেয় না বলে তিনি জানান।