রাজশাহী নকল কসমেটিক্স কারখানার সন্ধান বিভিন্ন ব্র্যান্ডের কোটি টাকার সামগ্রী জব্দ : আটক-৫

রুহুল আমীন খন্দকার, বিশেষ প্রতিনিধি : রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় দেশী বিদেশী বিভিন্ন ব্র্যান্ডের নকল কসমেটিক তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। বুধবার (০১ জুলাই) ২০২০ ইং দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে প্রায় কোটি টাকা মূল্যের নকল উপকরণ সামগ্রী জব্দ করা হয়েছে। পুঠিয়া পৌরসভার ৬-নং ওয়ার্ডের রামজীবনপুর গ্রামের মাসুদ রানার কারখানায় এ অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। অভিযানের সময় নকল কসমেটিকস কারখানা মালিক মাসুদ রানাসহ পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, পুঠিয়া পৌরসভার রামজীবনপুর গ্রামের মাসুদ রানা গোপনে নকল কসমেটিকস তৈরীর কারখানা গড়ে তুলেছে বলে খবর পাই গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআই। এর পর সেখানে নজরদারি বাড়ানো হয়। বুধবার রাত নয়টার দিকে পুঠিয়ার সহকারী কমিশনার (এসিল্যান্ড) ভূমি রোমানা আক্তারের নেতৃত্বে গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তা ও পুলিশ অভিযান চালায়। এ সময় নকল কসমেটিকস তৈরীর উপকরণ ও সরঞ্জামাদীসহ হাতেনাতে পাঁচজনকে আটক করতে সক্ষম হন।

আটককৃতরা হলেন যথাক্রমে, ওই এলাকার মোশাররফ হোসেনের ছেলে মাসুদ রানা (৩৬), তার আপন ভাই শফিকুল ইসলাম (৩১), মাসুদ রানার স্ত্রী দিলরুবা (৩২), একই এলাকার আব্দুল লতিফের স্ত্রী সাবেরা (৩১) ও রুহুল আমিনের ছেলে জাহিদ হাসান (১৬)। অভিযানে সময় সেখান থেকে নামি-দামি দেশি-বিদেশি কোম্পানীর ৯ প্রকারের বিপুল পরিমাণ নকল কসমেটিকস সামগ্রী জব্দ করা হয়েছে। এর মধ্যে ভারতীয় পতেঞ্জলি কোম্পানীর বিভিন্ন কসমেটিকসই বেশি জব্দ করা হয়। সেগুলো এখানেই অবৈধভাবে তৈরী করা হতো।

এ বিষয়ে এনএসআইয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সৈয়দ হোসেন গণমাধ্যম কর্মীদের জানান, মাসুদ রানা রাজশাহী ছাড়াও দেশের বিভিন্ন জেলায় ডিলারদের মাধ্যমে এসব নকল কসমেটিকস বিক্রি করতো। অভিযান পরিচালনাকালে উপস্থিত ছিলেন এনএসআইয়ের রাজশাহী জেলার সহকারী পরিচালক জাহিদ হাসানসহ পুলিশ প্রশাসন।