রামগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে গণধর্ষণ! তিন ধর্ষক কারাগারে

বিশেষ প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে হতদরিদ্র পরিবারের কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গণধর্ষন করার অভিযোগে সোমবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৩ ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেন।

সূত্রে জানান উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামের পাটোয়ারী বাড়ির নুরনবীর কিশোরী মেয়ে (১৫) বিয়ের সাথে পশ্চিম ভাদুর ওমর আলী মিজি বাড়ির ইব্রাহিমের ছেলে শাওনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক হয়।

এরই জেরধরে শাওন বিয়ের প্রলোভনে সোমবার কিশোরীকে তার নিজগ্রামের বেপারী বাড়ির বন্ধু ইমনদের ঘরে নিয়ে আসেন।

গভীররাতে ওই বাড়ির একটি পরিত্যক্ত ঘরে কিশোরীকে আটকে রেখে শাওন,ইমন,রাসেল ও আরিপ হোসেন নামে ৪ধর্ষক গণধর্ষণ করেন।

একপর্যায়ে ধর্ষিতা দৌড়ে গিয়ে ওই বাড়িতে গিয়ে ছিৎকার করে গণধর্ষণের বর্ননা দেন। প্রত্যক্ষদর্শী কিশোরীকে উদ্বার করে রামগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেন। সংবাদ পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে ৩জন ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেন।

সৃষ্ট ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে ধর্ষিতার পিতা নুরনবী থানায় মামলা করেন। থানা পুলিশ জানান অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে কোর্টে প্রেরণ করেছি। কিশোরীকে ডাক্তরী পরীক্ষার জন্য সরকারী হাসপাতালে প্রেরণ করেছি।