লেবাননে নিহত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার রনির পরিবারে চলছে শোকের মাতম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: লেবাননের রাজধানী বৈরুতে বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহত বাংলাদেশী মেহেদী হাসান রনির (২৪) গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের ভাদ্বেশরা গ্রামে চলছে শোকের মাতম। ছেলেকে হারিয়ে বার বার মুর্ছা যাচ্ছেন মা ইনারা বেগম।

তিনি বিশ্বাস করতে পারছেন না তার ছেলে আর বেঁচে নেই। জ্ঞান ফিরিয়ে আসলেই তিনি জিজ্ঞাসা করছেন আমার জাদু কই। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ছেলেকে হারিয়ে অনেকটা বাকরুদ্ধ তার বাবা তাজুল ইসলাম। তিনি জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে রনির রুমমেট ফোন করে জানায় বিস্ফোরণে তার ছেলের মৃত্যুর খবর। তার ছেলের মরদেহ দ্রæত দেশে ফিরিয়ে আনতে তিনি সরকারের
সহযোগী চান।

প্রসঙ্গত, পরিবারের স্বচ্ছলতা ফিরাতে ধার দেনা করে প্রায় ছয় বছর আগে একটি সুপার শপের কাজ নিয়ে লেবাননে যায় রনি। কিন্তু সেখানে সে অর্থনৈতিকভাবে সুবিধা করতে পারে নি। এখনও সে ঋণ পরিশোধ করতে পারে নি। বাড়ির চার শতাংশের জায়গায় একটি টিনের ঘর ছাড়া পরিবারটির আর কিছুই নেই।