শিকিরচরে গরিব কৃষকের ধান কেটে দিলো ছাত্রলীগ সহ নেতৃবৃন্দ

ডেস্ক রিপোর্ট: ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা‘র নির্দেশে, সাবেক মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম,সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপু‘র এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর সহ-সম্পাদক মাহি চৌধুরী‘র সার্বিক সহযোগিতায়, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস রোধে সারা দেশের মানুষ যখন ঘরবন্দী, তখন প্রাণের ভয়ে শ্রমিকেরাও গৃহবন্দী।

শ্রমিক সংকটে পাকা ধান কাটতে না পারা নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় রয়েছেন সারা দেশের কৃষকরা। গত কদিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে চলতি মৌসুমের আগাম ইরি-বোরো ধান কাটা শুরু হয়েছে।

তবে ধানের বাম্পার ফলন হলেও করোনা আতঙ্কে ধানকাটা শ্রমিক সঙ্কট দেখা দেয়ায় দুশ্চিন্তায় পড়েছিলেন মতলব উত্তর উপজেলাধীন ছেংগারচর পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কৃষকরা। সে সময় এক কৃষকের অনুরোধে ওই কৃষকের জমির ধান কেটে দেয় পৌর ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগ সহ যুবলীগ, কৃষকলীগের নেতৃবৃন্দ।

ধান কাটা পরিচালনায় ও উপস্থিত ছিলেন, পৌর কৃষকলীগের সভাপতি শরবত আলী মেম্বার, যুবলীগ নেতা মোঃ কাজল বেপারী, পৌর ছাত্রলীগের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট খোরশেদ আলম অপু, ছেংগারচর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের কমার্স শাখার সাবেক সভাপতি মোঃ সোহেল সরকার, জাহিদ প্রধান, সহ ছাত্রলীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।