স্মরণকালের শ্রেষ্ঠ পথসভায় মেয়র প্রার্থী জুয়েল

মোঃ আরিফ হোসেন: চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েলের সমর্থনে চাঁদপুর শহরে বিশাল পথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৬ সেপেটম্বর (শনিবার) বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগি সংগঠনের উদ্যোগে পথসভায় নতুনবাজারস্থ শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ও পৌর নির্বাচনী কার্যালয় সামনে থেকে পথ সভায় অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল এর সমর্থনে হাজার হাজার মানুষ এসে জড়ো হয়। চাঁদপুর পৌরসভার ১৫টি ওয়ার্ড থেকে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগি নেতৃবৃন্দের নেতৃত্বে আনন্দ ও উৎসবমুখর পরিবেশে নৌকা মার্কার সমর্থনে মিছিল করে নতুনবাজার এলাকায় সকলে মিলিত হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারীর সঞ্চালনায় পথভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডা. জেআর ওয়াদুদ টিপু ও আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী অ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েল।

এ সময় সকলের উদ্দেশ্যে মেয়র প্রার্থী অ্যাড.জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেন, আমি আপনাদের কাছে অঙ্গিকার করছি, আমি যদি চাঁদপুর পৌরসভা নিবর্বাচনে জয়ি হতে পারি, আমি চাঁদপুর পৌরসভার ইতিহাস ও ঐতিহ্য হিসেবে বানিজ্যিক শহরে পরিণত করবো। অনেক সম্ভবনাময় শহর এই চাঁদপুর। পর্যটনময় বিপুল সম্ভবনা নিয়ে দাড়িয়ে রয়েছে আমাদের চাঁদপুর। আমি আপনাদেরকে আসস্ত করতে চাই, আমি নির্বাচিত হলে সকল পরিকল্পনা নিয়ে চাঁদপুরেকে একটি আধুনিক ও পর্যটনময় শহরে রূপান্তরিত করবো। আজকের এই ভালোবাসা আমার সবচেয়ে বড় পাওয়া। আমি যতদিন বেচে থাকবো আপনাদের সহযোগিতা ও ভালোবাসা এবং এই দিনটির সম্মণ করবো। আমি কথা দিচ্ছি, আপনাদের এই ভালোবাসা মনের গভীরে ধারন করবো।

তিনি আরো বলেন, আমার বয়স ৪৭ বছর। আমি দৃঢ়তার সাথে বলতে পারি, এই ৪৭ বছর আমি সততার সাথে চলতে চেষ্টা করেছি। আমি বলতে পারি কখনো একটি পয়সাও অবৈধ ভাবে কামাই করেনি। আমি নির্বাচিত হতে পারলে সততার সাথে পৌরসভা, পৌরসভার নিয়মে চালাবো। এই পৌরসভায় কোন অনিয়ম হতে দিবো না। আওয়ামী লীগ একটি ঐতিহ্যবাহী দল, আমরা নির্বাচনের আচরন বিধি লঙ্ঘন করবো না। এই শহরের সবার সাথে সবার সম্পর্ক রয়েছে। আমরা সবাই একই ভাবে কাজ করার সুযোগ করে দিচ্ছি। আমি প্রশাসনকে বলেছি, যাতে সকল কিছু সুন্দর ও সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন হয়। আর তার সাথে আওয়ামী লীগ সহযোগিতা করবে। আমরা সকল প্রকার নির্বাচনী আচরণ বিধি মেনে নির্বাচন করবো বলে মেয়র প্রার্থী তার বক্তব্য শেষ করেন।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সন্তোষ দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, দপ্তর সম্পাদক মো. শাহ আলম মিয়া, প্রচার সম্পাদক আবু নাচের বাচ্চু পাটওয়ারী, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক অজয় কুমার ভৌমিক, তথ্য ও গভেষনা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. বিনয় ভ‚ষণ মজুমদার, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. হারুনুর রশিদ সাগর, সহ-প্রচার সম্পাদক হাসান ইমাম বাদশা, সদস্য মুনির আহমেদ, খালেদুর রহমান মিঠু, অ্যাড. বদিউজ্জামান কিরণ, আইয়ুব আলী বেপারী, দেলোয়ার হোসেন সরকার, বেলায়েত হোসেন বিল্লাল, চাঁদপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, ফরিদগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপিকা মাসুদা নুর খান, পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাধা গোবিন্দ গোপ, সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান বাবুল, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল, মোহাম্মদ আলী মাঝি, যুব মহিলা লীগের সভাপতি ফরিদা ইলিয়াস, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জহির উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সহ প্রমুখ।