হরিপুরে আশ্বিনা বৃষ্টিতে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি কম

জে.ইতি হরিপুর (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি: টানা কয়েকদিন ধরে হালকা, সোমবার দিবাগত রাত থেকেই শুরু হয়েছে ভারি বৃষ্টি। কখনো গুঁড়িগুড়ি,কখনো অঝোর ধারায়। এমন বৃষ্টিতে নিতান্ত প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হওয়া বড়ই কষ্টের।

এছাড়াও অনেকের ঘর থেকে বের হলেই কাদা পানি। আবার অনেকেরই বাড়ির সামনের রাস্তাপ বেহাল অবস্থা। এমন অবস্থায় ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলোতে কমছে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি। তবে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন প্রাথমিক বা কিন্ডার গার্টেনমুখী শিক্ষার্থীরা।

এছাড়াও জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে উপস্থিতি ছাড়াও রয়েছে বাড়িতে কোচিংয়ের চাপ। কিন্ত এমন বৃষ্টিতে ঘর থেকে বের হতে না পেরে হতাশায় রয়েছেন এসব শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা।আবার অনেক বিদ্যালয় ও বিদ্যালয়ের আশেপাশের এলাকায় বৃষ্টির পানি প্রবেশ করার কারণে ব্যাহত হচ্ছে ওইসব বিদ্যালয়ের পাঠদান কার্যক্রম।

উপজেলার কাঠালডাঙ্গীবাজারে দুলাল নামে এক অভিভাবক জানান, কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টি। এ অবস্থায় স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিলে পড়াশোনায় তো ক্ষতি হবে। তাই কষ্ট করে হলেও তিনি তার স্কুল পড়–য়া সন্তানকে নিয়ে বৃষ্টি উপেক্ষা করেই স্কুলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন।

বৃষ্টির হাত থেকে রক্ষা পেতে ছাতা নিয়ে স্কুলের পথে রওনা হওয়া পঞ্চম শ্রেণির কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান,স্কুলে না গেলে পড়ার অনেক ক্ষতি হবে। আজ আমাদের বাংলা মডেল টেস্ট পরীক্ষা ছিলো তাই বৃষ্টি অপেক্ষা করে তারা স্কুলমুখী।

উপজেলার বহতী উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর জবার জানান, এ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রয়েছে ২৭৫ জন। নিয়েমভাবে প্রায় ২৫০ জন শিক্ষার্থী ক্লাসে অংশগ্রহণ করে। কিন্ত বৃষ্টির কারণে আজ সোমবার মাত্র ৮০/৯০ জন শিক্ষার্থী উপস্থিত হয়েছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আজিজার রহমান জানান, বৃষ্টির কারণে অনেক স্কুলে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি একেবারে কমে আসছে।