হাজীগঞ্জে একযোগে মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা অভিযান

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্: “নিজ আঙ্গিনা পরিস্কার রাখি, সবাই মিলে সুস্থ থাকি” এই স্লোগানকে সামনে রেখে হাজীগঞ্জে একযোগে সকল ইউনিয়ন ও পৌরসভায় মশক নিধন এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা এবং মশক নিধনে কার্যকরি পদক্ষেপ গ্রহণের লক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার হাজীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত মশক নিধন ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে বর্ধিত ক্রাশ প্রোগ্রামের আওতায় এ মশক নিধন ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের উদ্বোধন ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. মঈনুল হাসান।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, সামামজিক অপরাধ ও  ডেঙ্গুসহ সকল রোগ প্রতিরোধে সম্মিলিত প্রচেষ্টায় সবাইকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। সম্প্রতি এডিস মশার বিস্তারে ডেঙ্গু রোগি আশংকাজনকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। এ রোগ প্রতিরোধে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, বাসা-বাড়ি, আশপাশের এলাকা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সকল স্থান পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। 

সভায় জেলা প্রশাসকের পরামর্শক্রকে মশক নিধন কার্যক্রম ও পরিস্কার- পরিচ্ছন্নতা অভিযান কার্যক্রম অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে হাজীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের জন্য ০১ টি ফগার মেশিন ও ১২টি ইউনিয়নের জন্য ১২টি করে ফগার মেশিন ক্রয় করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এ কাজে  উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, পৌর পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মাঈনুদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার জিয়াউল ইসলাম চৌধুরী, থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আলমগীর হোসেন রনি, ভাইস-চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক মুরাদ, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান মির্জা শিউলি পারবিন মিলি, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম, কৃষি কর্মকর্তা নয়ন মনি সূত্রধর, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. গোলাম মোস্তফা, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান মিন্টু, শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল সরকার প্রমুখ।

এছাড়াও পৌর সচিব মোহাম্মদ নুর আজম শরীফ, সহকারী প্রকৌশলী মো. ইদ্দিস মিয়া, উপ-সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) মোঃ মাহবুবুর রশিদ, সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন শ্রেনি-পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।