হাজীগঞ্জে ওয়ার্ল্ড ভিশন ডিজিটাল ক্যাবল নেটওর্য়াকের ১ লাখ ৫৮ হাজার টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিনিধি: আবারো অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের দায়ে হাজীগঞ্জে ওয়ার্ল্ড ভিশন ডিজিটাল ক্যাবল নেটওয়ার্ক কর্তৃপক্ষকে ১ লাখ ৫৮ হাজার ৯১ টাকা জরিমানা করেছে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১। সমিতির আওতাধীন এলটি লাইন হতে সরাসরি হুকিং করে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের কারনে এ জরিমানা করা হয়।

ইলেক্টেসিটি (সংশোধিত) আইন অনুযায়ী অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহারের কারনে ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ ইউনিটের মূল্য এবং নির্ধারিত জরিমানাসহ উল্লেখিত টাকা পরিশোধ করার জন্য ওয়ার্ল্ড ভিশন ডিজিটাল ক্যাবল নেটওয়ার্ক কর্তৃপক্ষের কাছে একটি লিখিত নোটিশ প্রদান করেন, সমিতির ভারপ্রাপ্ত সহকারি জেনারেল ম্যানেজার (অর্থ) ও এজিএম (প্রশাসন) মো. জহুরুল ইসলাম।

গত ৩০ অক্টোবর প্রেরিত নোটিশে ৩ নভেম্বর (রবিবার) এর মধ্যে উল্লেখিত টাকা পরিশোধ করার নির্দেশনা দেয়া হয়। এর আগে গত মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবার) অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের বিষয়টি হাতে-নাতে ধরেন সমিতি কর্তৃপক্ষ। তখন তাৎখনিক শাস্তিসরূপ ওয়ার্ল্ড ভিশন ডিজিটাল ক্যাবল নেটওয়ার্কের নিজস্ব ভবনের ৬টি বিদ্যুৎ সংযোগের মধ্যে ২টি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

এর পরের দিন (বুধবার) ১ লাখ ৫৮ হাজার ৯১ টাকা জরিমানা করে ওয়ার্ল্ড ভিশন ডিজিটাল ক্যাবল নেটওয়ার্ক এর সত্ত্বাধীকারীর (ব্যবস্থাপনা পরিচালক) রেজোয়ানুল নাহিদের বাবা শহীদ উল্যাহ নামে একটি লিখিত নোটিশ প্রেরণ করা হয়। যেহেতু ওই ভবনের বিদ্যুৎ সংযোগগুলো শহীদ উল্যাহ্ নামে, তাই তার নামে নোটিশ দেয়া হয়।

এ দিকে গত রবিবার (৩ নভেম্বর) আর্থিক সমস্যা কারন দেখিয়ে জরিমানাকৃত টাকা পরিশোধের জন্য ১৫ দিন সময় চেয়ে এবং বিষয়টিকে সঠিক তদন্ত করার জন্য, চাঁদপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) বরাবর লিখিত আবেদন করেন, শহীদ উল্যাহ।

এর আগেও অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের কারনে ১ লাখ ৫৮ হাজার ৫’শ ৯৯ টাকা জরিমানা দিয়েছিলো ওয়ার্ল্ড ভিশন ডিজিটাল ক্যাবল নেটওয়ার্ক কর্তৃপক্ষ। যা চলতি বছরের গত ৭ জানুয়ারী উল্লেখিত জরিমানার টাকা পরিশোধ করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি এজিএম (অর্থ)।

চাঁদপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সদর দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, ওয়ার্ল্ড ভিশন ডিজিটাল ক্যাবল নেটওর্য়াক কর্তৃপক্ষ তার নিজস্ব ভবনে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের অভিযোগে গত ২৯ অক্টোবর (মঙ্গলবার) দুপুরে সমিতির এজিএম (ইএন্ডসি) আব্দুল মালেকের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

অভিযানে অংশ নেয়া এজিএম (ওএন্ডএম) দেবব্রত ভৌমিক জানান, ওয়ার্ল্ড ভিশন ডিজিটাল ক্যাবল নেটওয়ার্ক কর্তৃপক্ষ তার নিজস্ব ভবনের পাশে আমাদের একটি বৈদ্যুতিক খুঁটিতে (খুঁটি নং-৫ই-৪, ৮এইচ-১৭-৮) তাদের ব্যবহৃত একটি মিডিয়া কনর্ভাটারের (এমসি) মাধ্যমে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে আসছে। তিনি বলেন, পরীক্ষা-নিরীক্ষায় অবৈধভাবে ৭ অ্যাম্পিয়ার বিদ্যুৎ লোড নেওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে।

এ বিষয়ে ওই দিন সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে ওয়ার্ল্ড ভিশন ডিজিটাল ক্যাবল নেটওর্য়াকের সত্ত্বাধীকারী রেজোয়ানুল নাহিদের বাবা শহীদুল্লাহ বলেন, কঠোর পরিশ্রম এবং বিনিয়োগের মাধ্যমে আমার ছেলে এ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলে আজকের অবস্থানে এসেছে। যা অনেকের সহ্য হচ্ছেনা। তারা আমাদেরকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন ও ব্যবসায়ীকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার লক্ষ্যে উঠেপড়ে লেগেছে।

তিনি বলেন, এর আগে একবার ষড়যন্ত্র করে আমাদের বিদ্যুৎ সংযোগের সাথে একটি তার (ক্যাবল) ঝুলিয়ে দিয়ে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে খবর দেয়। সে ঘটনায় আমাদের জরিমানা দিতে হয়েছে। তারা আবারো একই কাজ করেছে।