৬ আগস্ট পর্যন্ত ছুটি বাড়ল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আবারও বাড়ানো হয়েছে। আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। গতকাল সোমবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে শিক্ষার্থীদের সার্বিক নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার লক্ষ্যে আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত সব ধরনের সরকারি ও বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং কিন্ডারগার্টেন বন্ধ থাকবে। শিক্ষার্থীদের বাসস্থানে অবস্থানের বিষয়টি অভিভাবকরা নিশ্চিত করবেন এবং স্থানীয় প্রশাসন তা নিবিড়ভাবে পরিবীক্ষণ করবে। সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা তাঁদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা যাতে বাসস্থানে অবস্থান করে পাঠ্য বই অধ্যয়ন করে সে বিষয়টি অভিভাবকদের মাধ্যমে নিশ্চিত করবেন।

জানা যায়, গত রবিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় যৌথভাবে আলোচনা করে সরকারের উচ্চ পর্যায়ে দুই ধরনের ছুটির প্রস্তাব পাঠায়। একটি আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত আর অন্যটি ঈদুল আজহার ছুটি শেষ করে আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত। তবে সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত আসে। এর পরিপ্রেক্ষিতে দুই মন্ত্রণালয়ই আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত ছুটি বাড়ানোর ঘোষণা দেয়।

করোনাভাইরাস থেকে শিক্ষার্থীদের রক্ষা করতে গত ১৭ মার্চ থেকে দেশে সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। দফায় দফায় সেই ছুটি গতকাল পর্যন্ত চলমান ছিল। এরপর একবারে আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত প্রায় দুই মাস ছুটি বাড়ানো হলো। তবে গত ১ জুন থেকে প্রশাসনিক কাজের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অফিসকক্ষ খোলা রাখার অনুমতি দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।