রাজ্জাকের নতুন মাইলফলক

0
107

স্পোর্টস ডেস্ক: গুটিয়ে যাননি আব্দুর রাজ্জাক। যদিও জাতীয় দল থেকে অনেক দিন ই বাইরে এই বাঁহাতি স্পিনার। তাও বার বার নিজেকে নিজেই প্রমাণ করে যাচ্ছেন। নতুন এক মাইলফলক গড়লেন রাজ্জাক। বাংলাদেশের প্রথম কোন বোলার হিসেবে ‘লিস্ট এ’ (৫০ ওভারের ফরম্যাটে) ক্রিকেটে ৪০০ উইকেট নেইয়ার রেকর্ড ছুঁলেন তিনি। মাইলফলকের ম্যাচে বৃষ্টি আইনে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবকে ৫৭ রানে হারিয়েছে প্রাইম ব্যাংক। বুধবার ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের ৩৬ তম ম্যাচে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নামে প্রাইম ব্যাংক। ৩৮ ওভারে ৭ উইকেটে ২৩০ রান তোলে প্রাইম ব্যাংক। ম্যাচের মধ্যেই বৃষ্টি আর তাই বৃষ্টি আইনে ২৪০ রানে টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৮২ রানে থেমে যায় উত্তরার স্পোর্টিং ক্লাব।

২৪০ রানের নতুন টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৬৪ রান যোগ করেন উত্তরার দুই ওপেনার তানজিদ হাসান ও আনিসুল ইসলাম। তানজিদ ৩৫ রান করে আউট হন। দলীয় ৭২ রানে ব্যক্তিগত ৩৩ রান করে বিদায় নেন আরেক ওপেনার আনিসুল। এরপর প্রাইম ব্যাংকের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ধীরে ধীরে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় উত্তরা। কোনো ব্যাটসম্যানই বড় স্কোর গড়তে পারেননি। ১২৬ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় উত্তরা। এই চাপ থেকে আর বের হয়ে আসতে পারেনি তারা। শেষ পর্যন্ত শেখ হুমায়ুনের অপরাজিত ৩৯ রানে ইনিংসে শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ১৮২ রান করতে সমর্থ হয় উত্তরা।
প্রাইম ব্যাংকের আব্দুর রাজ্জাক ৪টি ও নাঈম হাসান ২টি উইকেট নেন। রাজ্জাকের ওই ৪ উইকেট এসেছে ৮ ওভারে মাত্র ১৫ রান খরচে। এই নিয়ে ‘লিস্ট এ’ ক্রিকেটে রাজ্জাকের উইকেটসংখ্যা হলো ২৬৯ ম্যাচে ৪০৩টি, বাংলাদেশের যেকোনো বোলারের চেয়ে বেশি। এর আগে প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে ৫০০ উইকেট নেওয়ার কীর্তিও গড়েছিলেন তিনি।
এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৬ রানে জাকির হাসানের উইকেট হারায় প্রাইম ব্যাংক। দ্বিতীয় উইকেটে দারুণভাবে ঘুড়ে দাঁড়ান এনামুল হক ও অভিমন্যু ইয়াশওয়ারান জুটি। ৭৪ রান আসে তাদের ব্যাট থেকে। তবে দলীয় ৮০ রানে প্রথমে এনামুল ৩৬ ও পরে ইয়াশওয়ারান ৩৫ রানে আউট হন। ২২ ওভারে ৩ উইকেটে ৯৮ রান তোলার পর বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।
বৃষ্টির পর আবার খেলা শুরু হলে ৫০ ওভারের ম্যাচ ৩৮ ওভারে নামিয়ে আনা হয়। চতুর্থ উইকেটে ব্যাট চালিয়ে রান তুলতে থাকেন আল-আমিন ও শামীম হোসাইন। ৯০ রানে জুটি গড়েন তারা। দলীয় ১৭০ রানে ৩৭ রান করে বিদায় নেন শামীম। এরপর আল আমিন ৪৭ বলে ৬০ রান করে আইট হন। দলের রান তখন ১৮৩। অলক কাপালির ১৮ বলে ২৫ রানের ইনিংসের কল্যাণে ৩৮ ওভারে ৭ উইকেটে ২৩০ রান সংগ্রহ করে প্রাইম ব্যাংক। উত্তরার আনিসুল ইসলাম ৩টি, আসাদুজ্জামান ২টি এবং সাজ্জাদ ও নাহিদ ১টি করে উইকেট নেন।

প্রাইম ব্যাংকের আব্দুর রাজ্জাক ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন। এই জয়ে ছয় ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে প্রাইম ব্যাংক।

বিরত

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপানার নাম লিখুন